ঢাকা:

সুস্বাস্থ্য ও শারীরিক সৌন্দর্যের জন্য আজকাল অনেকেই পেটের মেদ নিয়ে চিন্তিত। নানা কারণে পেটের মেদ কমানোর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যায়াম বা ডায়েট করা হয়ে ওঠে না। তবে পাঁচ আয়ুর্বেদিক উপাদানে ঝরাতে পারেন পেটের মেদ। পাশাপাশি কমাতে হবে শর্করা গ্রহণের পরিমাণ।

জেনে নিন পাঁচ আয়ুর্বেদিক উপাদানে পেটের মেদ কমানোর সহজ পদ্ধতি:দারুচিনি

দারুচিনি
দারুচিনি: দারুচিনি ওষুধিগুণ ভরা। প্রতিদিন সকালে দারুচিনি দিয়ে চা পান করলে পেটের মেদ কমবে।ত্রিফলা।
ত্রিফলা।
ত্রিফলা: আমলকি, হরতকি ও বহেরা এ তিনটি ফলকে বলা ত্রিফলা। ত্রিফলার রস ওষুধি হিসেবে খুবই জনপ্রিয়। শুকনো আমলকি, হরতকি ও বহেরা একসঙ্গে পানিতে ভিজিয়ে রাখা হয়। সারারাত পানিতে ভেজানোর পর ভোরে পানি ছেঁকে খালি পেটে পান করতে হবে। ফলে পেটের মেদ কমবে। একই সঙ্গে যারা পেটের পীড়া ভুগছেন ত্রিফলার রস পানে তাদেরও উপকার হবে।মালাবার তেঁতুল
মালাবার তেঁতুল
মালাবার তেঁতুল: মালাবার তেঁতুল একটি গ্রীষ্মকালীন বিদেশি ফল। এটি খেলে ওজন ও পেটের মেদ-ক্ষুধা কমাবে। এ ফলটি ডায়েটে রাখলে কোলেস্টেরল কমতে সহায়তা করবে।গুগলুলু: গুগলুলু হলো ওষুধি গাছের ফল। এই ফলটির শুকিয়ে গুঁড়া করে খেলে ওজন ও পেটের মেদ কমবে। প্রতিদিন সকালে গুঁড়া দিয়ে চা পান করলে মেদ কমবে হু হু করে।মেথিদানা

মেথিদানা
মেথিদানা: মেথিদানার গুণাগুণ আমাদের সবারই জানা। মেথিদানার গুঁড়া হজম শক্তি বৃদ্ধি ও ওজন কমায়। মেথিজল পানে পেটের মেদ কমে দ্রুত। পাশাপাশি এটির ব্যবহারে চুলপড়া রোধ করে।
Print Friendly, PDF & Email