সাফাত-সাদমান রিমান্ডে

শেয়ার

রাজধানীর বনানীতে দুই তরুণী ধর্ষণ মামলার আসামিআপন জুয়েলার্সের দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদ এবং রেগনাম গ্রুপের মালিক মোহাম্মদ হোসেন জনির ছেলে সাদমান সাকিফকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ। এর মধ্যে সাফাতকে ছয় দিন এবং সাদমানকে পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

শুক্রবার বিকালে তদন্ত কর্মকর্তার করা রিমান্ড আবেদনের শুনানি করে ঢাকার মহানগর হাকিম রায়হানুল ইসলাম এ্ই আদেশ দেন।

রিমান্ড আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের পিপি আব্দুল্লাহ আবু ও অতিরিক্ত পিপি শাহ আলম তালুকদার।

অন্যদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবী আব্দুর রহমান হাওলাদার এর বিরোধিতা করে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক জামিন নাকচ করে দুই আসামির রিমান্ডের আদেশ দেন।

এর আগে শুক্রবার বেলা তিনটার দিকে এই দুই আসামিকে কড়া নিরাপত্তায় ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে তোলা হয়। তাদের প্রত্যেককে ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা। আলোচিত এ মামলার দুই আসামিকে হাজির করার খবরে আদালত প্রাঙ্গণে ভিড় করে উৎসুক জনতা।

ঢাকার দুটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী গত ২৮ মার্চ রেইন ট্রি হোটেলে ধর্ষণের শিকার হন বলে ৬ মে তাদের একজন বনানী থানায় মামলা করেছেন। এই মামলার প্রধান আসামি সাফাত। সাদমান ছাড়াও আসামিদের মধ্যে আছেন ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট গ্রুপ ইমেকার্স এর প্রধান নাঈম আশরাফ এবং সাফাতের গাড়ি চালক বিল্লাল এবং দেহরক্ষী আবুল কালাম আযাদ।

বৃহস্পতিবার রাতে সিলেট থেকে গ্রেপ্তার হন সাফাত ও সাদমান। রাতেই তাদেরকে নিয়ে আসা হয় ঢাকায়। ভোরে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা কার্যালয়ে তাদেরকে নিয়ে আসা হয় এবং প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবে তারা অভিযোগ স্বীকার করেছেন বলে জানিয়েছেন ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার কৃষ্ণপদ রায়।

No widgets found. Go to Widget page and add the widget in Offcanvas Sidebar Widget Area.