লক্ষ্মীপুরে র‌্যাবের সাঁড়াশি অভিযান; ৭ ব্যাক্তির কারাদন্ড

শেয়ার

rab-11-ovizane-pic
পল্লী নিউজ ডেক্স:
চিকিৎসার নামে প্রতারনা,মেয়াদ উত্তীর্ন ঔষধ বিক্রি,অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ভেজাল খাদ্যদ্রব্য বিক্রিসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে লক্ষ্মীপুরে ৬টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ৬লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় ৬জনের ৬মাসের ও এক জনের এক বছরের কারাদন্ড প্রদান করা হয়।

বৃহস্পতিবার বিকেলে এ কারাদন্ড ও জরিমানা প্রদান করা হয়। এরআগে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ওইসব প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে দন্ডপ্রাপ্তদের আটক করে র‌্যাব-১১ লক্ষ্মীপুর ক্যাম্প। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আরিফুল ইসলাম।
র‌্যাব ১১ লক্ষ্মীপুর ক্যাম্পোর কোম্পানী অধিনায়ক মেজর এ এম আশরাফুল ইসলাম জানান, লক্ষ্মীপুর জেলা শহরে বিভিন্ন বেকারী, ফার্মেসী ও ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে বৃহস্পতিবার অভিযান চালানো হয়। এসময় বিভিন্ন অনিয়মের কারনে ৭জনকে আটক করা হয়।

পরে তাদের ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হলে ৬জনকে ছয় মাসের কারাদন্ড ও একজনকে একবছরের কারাদন্ড দেয়া হয়। এছাড়াও ৬টি প্রতিষ্ঠানের ৬লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। দন্ডপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান ও ব্যাক্তিরা হলো-মেডিনোভা ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের মালিক মুরাদ হোসেন, ভুয়া চক্ষু চিকিৎসক জাহাঙ্গীর হোসেন, ভুয়া টেকনিশিয়ান খোরশেদ আলম, লুবনা ফার্মেসীর মালিক ভূয়া চিকিৎসক প্রদীপ মজুমদার, মা ডেন্টালের মালিক ভূয়া চিকিৎসক হুমায়ুন কবির, লাকি ডেন্টাল কেয়ার মালিক মাহফুজুর রহমান, ভবানীগঞ্জ চৌরাস্তার রুচী বেকারীর মালিক আবুল কালাম।

No widgets found. Go to Widget page and add the widget in Offcanvas Sidebar Widget Area.