শুক্রবার, ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ ,৭ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় অনুমোদিত, রেজি:নং ৭৮

লক্ষ্মীপুরে মুক্তিযোদ্ধাকে পেটালেন আ’লীগ সমর্থিত প্রভাবশালী ইউপি চেয়ারম্যান

Array

পল্লী নিউজ ডেস্ক :
লক্ষ্মীপুরে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মন্ত্রানালয়ে আবেদন করায় নুর মোহাম্মদ (৭২) নামের এক মুক্তিযোদ্ধাকে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে প্রভাবশালী আওয়ামীলীগ নেতা ও ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম চৌধুরী ও সহযোগীদের বিরুদ্ধে।

শনিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে সদর উপজেলার ৯নং উত্তরজয়পুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে চেয়ারম্যান তাকে ডেকে নিয়ে বাথরুমে আটক রাখে । একপর্যায়ে চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে চৌকিদার আবদুল্লাহ, পরান মেম্বার ও স্থানীয় টিপু তাকে এলোপাতাড়ি মারধর করে বলে সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন মুক্তিযোদ্ধা নুর মোহাম্মদ। আহত মুক্তিযোদ্ধাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অভিযুক্ত আবুল কাশেম সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ৯নং উত্তর জয়পুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান এবং আহত মুক্তিযোদ্ধা নুর মোহাম্মদ চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়নের পশ্চিম চৌপল্লী গ্রামের শহীদ মুক্তিযোদ্ধা মুকবুল আহম্মেদের ছেলে।

সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মুক্তিযোদ্ধা নুর মোহাম্মদ সাংবাদিকদের জানান, তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধে কমান্ডার ছিলেন। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ি সম্প্রতি তিনি তার এলাকার ভূয়া মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সদর ইউএনও বরাবর আবেদন করেন। পরে অভিযোগটি ইউএনও সমাজসেবা কর্মকর্তাকে তদন্তের জন্য দেন। সেখান থেকে ঘটনাটি জেনে চেয়ারম্যান আবুল কাশেমেরসহ কয়েকজন ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়।

শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তাকে চেয়ারম্যান আবুল কাশেম কার্যালয়ে ডেকে নেন। একপর্যায়ে চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, চৌকিদার আবদুল্লাহ, পরান মেম্বার ও স্থানীয় টিপু তাকে এলোপাতাড়ি মারধর করে বাথরুমে আটকে রাখে। পরে তিনি জানলার ফাঁক দিয়ে পালিয়ে প্রাণে রক্ষা পান।

আওয়ামীলীগ নেতা ও ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম চৌধুরী অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, নুর মোহাম্মদের নেতৃত্বে স্থানীয় কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের সামনে কৃষি সম্প্রসারনের জায়গা দখলের চেষ্টা করে। এবিষয়ে জানার জন্য নুর মোহাম্মদকে ডেকে আনলে তার ওপর হামলার চেষ্টা চালায়। এতে জনরোষ সৃষ্টি হলে মুক্তিযোদ্ধা নুর মোহাম্মদকে নিরাপদে রাখতে কার্যালয়ের একটি কক্ষে নিরাপদে বসিয়ে রাখা হয়। তিনি সেখান থেকে পালিয়ে যেতে লাফিয়ে পড়ে আহত হন।

সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. মাহবুব  বলেন, একজন মুক্তিযোদ্ধাকে এ ভাবে আটকে রেখে পেটানো নেক্কার জনক ঘটনা। এ বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

লক্ষ্মীপুর চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুর রহমান জানান, জয়পুর ইউনিয়ন পরিষদে মুক্তিযোদ্ধাকে আটকে রেখে মারধর করার ঘটনাটি শুনেছি। কেউ এখনো অভিযোগ করতে আসেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সর্বশেষ

কমলনগরে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস উদযাপন

নিজস্ব প্রতিনিধি: নির্ভুল জন্ম নিবন্ধন করব, শুদ্ধ তথ্যভান্ডার গড়ব’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে লক্ষ্মীপুর কমলনগরে জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস-২০২২ উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা...

আমরা চাই সব দল নির্বাচনে আসুক: প্রধানমন্ত্রী

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সব দল অংশগ্রহণ করবে বলে প্রত্যাশা করেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী...

আন্তর্জাতিক সেমিনার শেষে দেশে ফিরেছেন ডাঃ এম মোকতার হোসেন

মো. বদিউজ্জামান (তুহিন), নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব ক্লিনিক্যাল কেমিস্ট্রি ও ল্যাবরেটরি মেডিসিনের আমন্ত্রণে আন্তর্জাতিক...

আশ্রয়ণের অধিকার শেখ হাসিনার উপহার

মো. বদিউজ্জামান ( তুহিন), নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের ৩ নং জিরতলী ইউনিয়নে ভূমিহীন ও গৃহহীন...

ইলিশের প্রজনন মৌসুম, মেঘনায় ২২ দিন ইলিশ শিকার বন্ধ

রুবেল চক্রবর্তী- ৭ অক্টোবর থেকে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিন মেঘনা নদীতে মাছ ধরার উপর...

চরভদ্রাসনে জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস পালিত

চরভদ্রাসন(ফরিদপুর) প্রতিনিধিঃ নির্ভুল জন্ম মৃত্যু নিবন্ধন করব শুদ্ধ তথ্যভান্ডার গড়ব এই স্লোগানকে সামনে রেখে ফরিদপুর...