লক্ষ্মীপুরে প্রবল বর্ষণে রবিশস্যের ব্যাপক ক্ষতি

শেয়ার

নিজস্ব প্রতিবেদক :
লক্ষ্মীপুরে প্রবল বৃষ্টিতে ডুবে নষ্ট হয়ে গেছে নিন্মাঞ্চলের সাড়ে ৩ হাজার হেক্টর জমির ফসল। নষ্ট হয়েছে সয়াবিন, বাদাম, মরিচ, ডাল জাতীয় ফসলসহ রবিশস্য। বুধবার, বৃহস্পতিবার, শুক্রবার ও শনিবারের প্রবল বৃষ্টিপাতের কারণে জমিতে পানি জমে নষ্ট হয়েছে এসব ফসল। কৃষকরা বলছেন, এবার লোকসানই গুনতে হবে তাদের। তবে ফসলী জমিতে জমে থাকা পানি দ্রুত বের করে দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে বলে জানায় কৃষি বিভাগ।
লক্ষ্মীপুর কৃষি অধিদপ্তরের তথ্য মতে, জেলার হাজার হাজার হেক্টর জমি বৃষ্টির পানিতে ডুবে গেছে। বৃষ্টির পানিতে ডুবে ক্ষতি হয়েছে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার হেক্টর জমির ফসল। এর মধ্যে রয়েছে বোর ধান, সয়াবিন, বাদাম, মরিচ, ডাল জাতীয় ফসলসহ রবিশস্য।
খোজ নিয়ে জানা যায়, টানা বৃষ্টিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে সদর উপজেলা ভবানীগঞ্জ, পেয়ারাপুর, কমলণগরে  তোরাবগঞ্জ, চর জাঙ্গালিয়া, চর ফলকন, চর কাদিরা, রামগতি নিন্মাঞ্চলের ফসলি মাঠ। এতে সব হারিয়ে হতাশা পড়েছে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকরা। আর তাদের লোকসান গুনতে হবে লাখ লাখ টাকা। এ লোকসানের ভর্তুকির দাবী কৃষকদের।
সরেজমিনে সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ মিয়ার বেড়ী এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, বিস্তৃর্ণ সয়াবিনের ক্ষেত বৃষ্টির পানির ডুবে গেছে। নষ্ট হয়েছে সয়াবিন। কৃষকরা ফসল রক্ষায় পাম্প মেশিন বসিয়ে পানি নিষ্কাশন করছে। আবার কোথাও কোথাও কৃষক হাত দিয়ে জমি থেকে পানি সরানোর চেষ্ট করছে।
চরমনসা গ্রামের সয়াবিন চাষী সালাহ উদ্দিন মোল্লা জানান, স্থানীয় সমিতি থেকে ঋণ নিয়ে দুই কানি জমিতে সয়াবিনের আবাদ করেছেন। সয়াবিনের বাম্পার ফলনের আশায়। কিন্তু প্রবল বৃষ্টির কারণে তার ক্ষেত পানির নিচে তলি সয়াবিন নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এতে দিশেহারা তিনি।
কয়েকজন কৃষক জানায়, প্রবল বৃষ্টির কারণে তাদের কৃষি আবাদ জমি নষ্ট হয়ে গেছে। এতে তাদের লাভের তুলনায় লোকসানই বেশি হবে।
লক্ষ্মীপুরের উপ-কৃষি কর্মকর্তা মো. আবুল হোসেন বলেন, যেসব জমিতে বৃষ্টির পানি জমে আছে। ওই সকল জমির জমানো পানি দ্রুত বের করে দেওয়ার জন্য  মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা পরামর্শ দিচ্ছেন। তাছাড়া যেসকল জমিতে বোরধান ৮০ ভাগ ফাকা শুরু হয়েছে, সেসব ধান দ্রুত কেটে পেলার জন্য কৃষকদের পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। এতে অনেকটা লোকসানের হাত থেকে রক্ষা পাবে কৃষক।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ গোলাম মোস্তফা বলেন, প্রবল বৃষ্টিতে ক্ষেতে ফসল নষ্ট হচ্ছে। ক্ষেত থেকে পানি সরিয়ে দিতে কৃষকদের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা পরামর্শ দিচ্ছেন।

No widgets found. Go to Widget page and add the widget in Offcanvas Sidebar Widget Area.