মঙ্গলবার, ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ ,৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় অনুমোদিত, রেজি:নং ৭৮

লক্ষ্মীপুরে প্রবল বর্ষণে রবিশস্যের ব্যাপক ক্ষতি

Array

নিজস্ব প্রতিবেদক :
লক্ষ্মীপুরে প্রবল বৃষ্টিতে ডুবে নষ্ট হয়ে গেছে নিন্মাঞ্চলের সাড়ে ৩ হাজার হেক্টর জমির ফসল। নষ্ট হয়েছে সয়াবিন, বাদাম, মরিচ, ডাল জাতীয় ফসলসহ রবিশস্য। বুধবার, বৃহস্পতিবার, শুক্রবার ও শনিবারের প্রবল বৃষ্টিপাতের কারণে জমিতে পানি জমে নষ্ট হয়েছে এসব ফসল। কৃষকরা বলছেন, এবার লোকসানই গুনতে হবে তাদের। তবে ফসলী জমিতে জমে থাকা পানি দ্রুত বের করে দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে বলে জানায় কৃষি বিভাগ।
লক্ষ্মীপুর কৃষি অধিদপ্তরের তথ্য মতে, জেলার হাজার হাজার হেক্টর জমি বৃষ্টির পানিতে ডুবে গেছে। বৃষ্টির পানিতে ডুবে ক্ষতি হয়েছে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার হেক্টর জমির ফসল। এর মধ্যে রয়েছে বোর ধান, সয়াবিন, বাদাম, মরিচ, ডাল জাতীয় ফসলসহ রবিশস্য।
খোজ নিয়ে জানা যায়, টানা বৃষ্টিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে সদর উপজেলা ভবানীগঞ্জ, পেয়ারাপুর, কমলণগরে  তোরাবগঞ্জ, চর জাঙ্গালিয়া, চর ফলকন, চর কাদিরা, রামগতি নিন্মাঞ্চলের ফসলি মাঠ। এতে সব হারিয়ে হতাশা পড়েছে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকরা। আর তাদের লোকসান গুনতে হবে লাখ লাখ টাকা। এ লোকসানের ভর্তুকির দাবী কৃষকদের।
সরেজমিনে সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ মিয়ার বেড়ী এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, বিস্তৃর্ণ সয়াবিনের ক্ষেত বৃষ্টির পানির ডুবে গেছে। নষ্ট হয়েছে সয়াবিন। কৃষকরা ফসল রক্ষায় পাম্প মেশিন বসিয়ে পানি নিষ্কাশন করছে। আবার কোথাও কোথাও কৃষক হাত দিয়ে জমি থেকে পানি সরানোর চেষ্ট করছে।
চরমনসা গ্রামের সয়াবিন চাষী সালাহ উদ্দিন মোল্লা জানান, স্থানীয় সমিতি থেকে ঋণ নিয়ে দুই কানি জমিতে সয়াবিনের আবাদ করেছেন। সয়াবিনের বাম্পার ফলনের আশায়। কিন্তু প্রবল বৃষ্টির কারণে তার ক্ষেত পানির নিচে তলি সয়াবিন নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এতে দিশেহারা তিনি।
কয়েকজন কৃষক জানায়, প্রবল বৃষ্টির কারণে তাদের কৃষি আবাদ জমি নষ্ট হয়ে গেছে। এতে তাদের লাভের তুলনায় লোকসানই বেশি হবে।
লক্ষ্মীপুরের উপ-কৃষি কর্মকর্তা মো. আবুল হোসেন বলেন, যেসব জমিতে বৃষ্টির পানি জমে আছে। ওই সকল জমির জমানো পানি দ্রুত বের করে দেওয়ার জন্য  মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা পরামর্শ দিচ্ছেন। তাছাড়া যেসকল জমিতে বোরধান ৮০ ভাগ ফাকা শুরু হয়েছে, সেসব ধান দ্রুত কেটে পেলার জন্য কৃষকদের পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। এতে অনেকটা লোকসানের হাত থেকে রক্ষা পাবে কৃষক।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ গোলাম মোস্তফা বলেন, প্রবল বৃষ্টিতে ক্ষেতে ফসল নষ্ট হচ্ছে। ক্ষেত থেকে পানি সরিয়ে দিতে কৃষকদের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা পরামর্শ দিচ্ছেন।

সর্বশেষ

কেকেএসপি’র উদ্যোগে মাসব্যাপী ফুটবল প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের উদ্বোধন

খুলনা প্রতিনিধি:- পাইকগাছার কপিলমুনির ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কেকেএসপি'র পরিচালনায় উদ্বোধন হলো মাসব্যাপী ফুটবল প্রশিক্ষণ ক্যাম্প-২০২৩।সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৩টায় কপিলমুনি সহচরী বিদ্যামন্দির স্কুল এন্ড...

ভেজাল ও নকল ওষুধ তৈরি করলে যাবজ্জীবন, চূড়ান্ত অনুমোদন

ভেজাল ও নকল ওষুধ তৈরি করলে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রেখে ঔষধ আইন ২০২৩ এর...

দেশের জনসংখ্যা বেড়ে ১৬ কোটি ৯৮ লাখ

বাংলাদেশের জনসংখ্যা বেড়ে ১৬ কোটি ৯৮ লাখ ২৮ হাজার ৯১১ জনে দাঁড়িয়েছে। জনশুমারি ও...

কোহলি-রোহিতের সংঘাত নিয়ে যা বললেন কোচ

ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২৪০ রানের টার্গেট তাড়ায় ২২২...

তিন ফসলি জমি ধ্বংস না করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

দেশের যেসব জমিতে তিনটি ফসল হয় সেসব জমি উন্নয়ন প্রকল্প নেওয়ার সময় ধ্বংস না...

তুরস্কে আবারও ৭.৬ মাত্রার তীব্র ভূমিকম্প, মৃত্যু বেড়ে প্রায় দুই হাজার

সোমবার ভোররাতে হওয়া ৭.৮ মাত্রার ভয়াবহ ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছে তুরস্ক। এতে হাজার হাজার মানুষের...