বৃহস্পতিবার, ১৯শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ ,২রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় অনুমোদিত, রেজি:নং ৭৮

‘রোয়ানু’ এগিয়েছে, নিরাপদে যেতে প্রস্তুতি নেওয়ার নির্দেশ

Array

ঢাকা: ঘূর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’ ক্রমেই উপকূলের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। ঘূর্ণিঝড়টি গত ২৪ ঘণ্টায় অন্তত আড়াইশ’ কিলোমিটার এগিয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এর প্রভাবে উপকূলে বৃষ্টি শুরু হয়েছে।

শুক্রবার (২০ মে) সকাল ৯টা নাগাদ উপকূল থেকে হাজার কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছিল, যা ক্রমেই অগ্রসর হচ্ছে বলে জানাচ্ছেন আবহাওয়াবিদরা।

আর এর প্রেক্ষিতে উপকূলের মানুষদের নিরাপদে সরিয়ে নিতে মানসিক প্রস্তুতি নিয়ে সরকার উপকূলবাসীকে প্রস্তুত হতে নির্দেশ দিয়েছে। উপকূলের ১৮ জেলায় সরকারি ছুটি বাতিল করা হয়েছে দু’দিন।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর এবং স্থানীয় অফিসগুলো খোলা রাখা হয়েছে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের সচিব শাহ কামাল সকাল সাড়ে ৯টায় বলেন, ঘুর্ণিঝড়টি এখনও দুর্বল হয়নি। দুর্যোগ মোকাবেলায় আমরা মানসিক প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছি, সে অনুযায়ী জেলা প্রশাসকদের সার্বিক নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, উপকূলবাসীকে নিরাপদে নিতে জেলা প্রশাসনকে নৌকাসহ যাবতীয় প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে বলেছি। সেই সঙ্গে আশ্রয় কেন্দ্রে চিকিৎসা, খাদ্য, পরিস্কার খাবার পানিসহ সেনিটেশন ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে নির্দেশ দিয়েছি।

আবহাওয়া অফিসের সঙ্গে প্রতিক্ষণ যোগাযোগ রাখা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, সংকেত ৭ নম্বরে এলে আশ্রয় কেন্দ্রে সরিয়ে নেব। উপকূলে ৫৫ হাজার
স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত রয়েছে। আবহাওয়া অফিসের সঙ্গে যোগাযোগ করে দিনের বেলা নিরাপদে নিতে চাই।

সচিব আরও বলেন, স্বেচ্ছাসেবীরা সিগন্যাল অনুযায়ী মাইকিং করছেন, কোন সিগন্যালে কী করতে হবে- তা জানিয়ে মাইকিং করছেন প্রস্তুতির জন্য।

আবহাওয়া অফিস ঘূর্ণিঝড়ের বিশেষ বুলেটিনে (নং-১১) জানায়, সকাল ৬টায় চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ১ হাজার ২০৫ কিমি দক্ষিণপশ্চিম, কক্সবাজার
সমুদ্র বন্দর থেকে ১ হাজার ১৮০ কিমি দক্ষিণপশ্চিম, মংলা সমুদ্র বন্দর থেকে ১ হাজার ২৫ কিমি দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ১ হাজার
৫৫ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছিল।

‘রোয়ানু’ আরও ঘনীভূত হয়ে উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদ আরিফ হোসেন।

তিনি বলেন, অগ্রসর হলেও এটি দুর্বল হতে পারে আবার উপকূলের দিকে এলে শক্তি সঞ্চয় করে আরও শক্তিশালী হতে পারে। তবে এখনও নির্দিষ্ট করে কিছু বলা যাচ্ছে না। আরও কাছাকাছি এলে সে অনুযায়ী সতর্কতা জানানো হবে।

আরিফ হোসেন জানান, ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৫৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৬২ কিলোমিটার যা দমকা অথবা ঝড়োহাওয়ার আকারে ৮৮ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। ঘুর্ণিঝড় কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর খুবই উত্তাল রয়েছে।

ইতোমধ্যে উপকূলের জেলাগুলোতে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি শুরু হয়েছে জানিয়ে আবহাওয়াবিদ আরিফ হোসেন বলেন, এই বৃষ্টি ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে হচ্ছে। যা
ভারী বর্ষণে রূপ নিতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের বুলেটিনে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরা নৌকা ও ট্রলারকে উপকূলের কাছাকাছি থাকতে বলা হয়েছে, যাতে তারা স্বল্প সময়ের নির্দেশে নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে পারে। সেই সঙ্গে তাদেরকে গভীর সাগরে বিচরণ না করতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদফতরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে।

নিম্নচাপের প্রভাবে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড়ের কারণে গত দু’দিন ধরে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টিপাতের খবর পাওয়া গেছে।

১২ ঘণ্টা আগে অর্থাৎ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ১৩৬৫ কিমি দক্ষিণপশ্চিম, কক্সবাজার সমুদ্র বন্দর থেকে ১৩৩৫ কিমি দক্ষিণপশ্চিম, মংলা সমুদ্র বন্দর থেকে ১১৮৫ কিমি দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ১২১৫ কিলো দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছিল।

আর ওইদিন সকাল ৯টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ১৪২৫ কিমি দক্ষিণ-পশ্চিম, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ১৩৯৫ কিমি দক্ষিণ-পশ্চিম, মংলা সমুদ্র বন্দর থেকে ১২৪৫ কিমি দক্ষিণ-পশ্চিম এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ১২৭৫ কিমি দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল।

এদিকে, ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষয়ক্ষতি থেকে জানমাল রক্ষায় উপকূলীয় জেলাসমূহের শুক্র ও শনিবার সকল সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করেছে সরকার।

দুর্যোগ সচিব শাহ কামাল বৃহস্পতিবার রাতে বলেন, ঘূর্ণিঝড়ের তীব্রতার খবর পেয়ে তারা মন্ত্রণালয়ে জরুরি সভা করেন। ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় উপকূলের আশ্রয় কেন্দ্রগুলো প্রস্তুত করে প্রয়োজনে দুর্গতদের পর্যাপ্ত শুকনো খাবার, পানীয়-জল প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এছাড়া নগদ অর্থ বরাদ্দ রয়েছে। সাইক্লোন সেল্টারগুলো ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, স্বেচ্ছা প্রস্তুত রাখা হয়েছে, তারা মাইকিং করে স্থানীয়দের সতর্ক করছেন ৪ নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেতের কথা। স্থানীয় ইউনিয়ন ও উপজেলা দুর্যোগ কমিটিগুলোকে মিটিং করে সর্বদা প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে বলেও জানান সচিব।

ঘুর্ণিঝড়ের তীব্রতা বাড়লে যাতে দুর্গতদের দ্রুত সরিয়ে আনা যায় সে প্রস্তুতি নেওয়ার কথাও জানান সচিব।

পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন দক্ষিণ পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত গভীর নিম্নচাপটি উত্তর দিকে অগ্রসর ও ঘণীভূত হয়ে বৃহস্পতিবার (১৯ মে) ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেয়, আবহাওয় অধিদপ্তর তার নাম দিয়েছে ‘রোয়ানু’।

সর্বশেষ

৯ সেপ্টেম্বর ভারত সফরে যাবেন প্রধানমন্ত্রী

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে আগামী ৯-১০ সেপ্টেম্বর ২ দিনের সফরে ভারতে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রুয়ারি) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আয়োজিত সাপ্তাহিক মিডিয়া...

ঢাকায় ফিরলেন শাকিব

যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে দেশে ফিরেছেন ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান। খবরটি এ তারকা জানিয়েছেন সামাজিক...

দেশের প্রথম পাতাল রেল নির্মাণকাজ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

দেশের প্রথম পাতাল মেট্রোরেল প্রকল্প এমআরটি লাইন-১ এর নির্মাণকাজের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার...

পাইকগাছার কপিলমুনি কলেজে নবীণ বরণ অনুষ্ঠিত

এম এম টিপু সুলতান : পাইকগাছার কপিলমুনি কলেজে ২০২২-২৩ শিক্ষা বর্ষের একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের নবীণ...

নেত্রকোণার ভুলে যাওয়া শিশুদের মনে রেখেছে ‘লাইটশোর’

আব্দুর রহমান ঈশান, নেত্রকোণা প্রতিনিধিঃ লাইটশোর-এর উদ্যোগে প্রকৃতির পাঠশালার তত্ত্বাবধানে গারো-হাজং শিশুদের নিয়ে একটি আর্ট...

৪৮ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ মূল্যস্ফীতি পাকিস্তানে

পাকিস্তানে গত জানুয়ারি মাসে মূল্যস্ফীতি দাঁড়িয়েছে ২৭ দশমিক ৫৫ শতাংশে। গত ৪৮ বছরের মধ্যে...