সোমবার, ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ ,১৬ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় অনুমোদিত, রেজি:নং ৭৮

রায় দিতে আদালতই উড়ে যাচ্ছেন জেলে

Array

দুই অনুসারীকে ধর্ষণের অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত ভারতের আলোচিত ‘ধর্মগুরু’ গুরমিত রাম রহিম সিংকে আদালতে নেওয়া হচ্ছে না। নিরাপত্তার স্বার্থে আদালতকেই হেলিকপ্টারে করে উড়িয়ে নেওয়া হচ্ছে জেলে, যেখানে বন্দী রয়েছেন রাম রহিম। তিনি রোহতক শহর থেকে ১০ কিলোমিটার দূরের সানোরিয়া কারাগারে শাস্তির রায় শোনার অপেক্ষায় রয়েছেন।

সেন্ট্রাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (সিবিআই) একটি বিশেষ আদালত গত শুক্রবার রাম রহিমকে দোষী সাব্যস্ত করেন। আজ সোমবার দুপুরে তাঁর সাজা ঘোষণা করা হবে। এ অপরাধের শাস্তি হিসেবে রাম রহিমের সাত বছরের কারাদণ্ড হতে পারে। শুক্রবার রাম রহিম দোষী সাব্যস্ত হতেই তাঁর ভক্তরা তাণ্ডব চালায়। হরিয়ানার পঞ্চকুলায় ভক্তদের লাগামছাড়া সহিংসতায় নিহত হন ৩৮ জন। জখম হন ২৫০ জনেরও বেশি।

আজ ভারতের বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই সহিংসতার পর ঝুঁকি নিতে চাইছে না প্রশাসন। নিরাপত্তার স্বার্থে আদালতকেই উড়িয়ে নেওয়া হচ্ছে কারাগারে। কারাগারটি ঘিরে রেখেছেন নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতের বিচারক জগদীপ সিংহকে বিশেষ নিরাপত্তা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। ঘোষণার পরে তিনি ফিরবেনও হেলিকপ্টারে করে।

শুক্রবারের ঘটনার পর রোহতক কারাগারের আশপাশে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। হরিয়ানার সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। মুঠোফোনের ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করা হয়েছে। স্বঘোষিত ধর্মগুরুর ভক্তরা যাতে কারাগারের আশপাশে যেতে না পারে, সে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। কারাগারের চারপাশে অবস্থান নিয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী এবং হরিয়ানা পুলিশ। শহর থেকে সেখানে যাওয়ার পথ আটকে দেওয়া হয়েছে, যাতে ভক্তরা কারাগারের আশপাশে জড়ো হতে না পারে। জেলা কর্তৃপক্ষ সেনা-সহায়তা চেয়েছে। সেনাবাহিনীও প্রস্তুত রয়েছে। রোহতকের পুলিশ কোনো ধরনের তাণ্ডবের ইঙ্গিত পেলেই গুলি করা হবে বলে সতর্ক করে দিয়েছে।

এদিকে সিরসায় রাম রহিমের প্রধান ডেরা সচ সউদে এখনো ৩০ হাজার ভক্ত অবস্থান করছে। তারা আজকের রায়ের দিকে তাকিয়ে আছে। এই ভক্তরা যাতে নতুন করে কোনো সহিংসতা করতে না পারে, সে জন্যে সেনা মোতায়েন অব্যাহত রাখা হয়েছে।

হরিয়ানার পঞ্চকুলা ও সিরসায় বলবৎ রয়েছে কারফিউ। অধিবাসীরা যাতে খাবার ও নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র সংগ্রহ করতে পারে, সে জন্য গতকাল সকাল ৬টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত কারফিউ শিথিল করা হয়। দিল্লির ১১টি, উত্তর প্রদেশের নয়টি ও রাজস্থানের একটি জেলায় বড় ধরনের সমাবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

দোষী সাব্যস্ত করে রায় ঘোষণার পর শুক্রবার বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত হাঙ্গামায় হতাহত ও ক্ষয়ক্ষতির ঘটনার পর সরকারি সম্পত্তির ক্ষতিপূরণে হাইকোর্ট রাম রহিমের ডেরা সচ সউদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন।

সর্বশেষ

সিরাজগঞ্জে গণহত্যার স্মৃতিফলকের স্থান নির্বাচনে জেলা প্রশাসককে চিঠি

ইমরান হোসাইন, সিরাজগঞ্জ:  সিরাজগঞ্জের শিয়ালকোলে গণহত্যা স্মৃতিফলক নির্মাণের স্থান নির্বাচন করার জন্য সোমবার সকালে সিরাজগঞ্জ গণহত্যা অনুসন্ধান কমিটির পক্ষে থেকে জেলা প্রশাসককে চিঠি দেওয়া হয়। সিরাজগঞ্জ...

জোয়ারের পানিতে ডুবে যাচ্ছে ফেরীঘাট,ঝুকিতে চলছে যানবাহন

ময়নুল সুমন, বরগুনা জেলা প্রতিনিধিঃ বরগুনায় অশনি পরবর্তী ও পূ্র্ণীমার প্রভাবে উপকূলীয় জেলা বরগুনার প্রধান...

বিএনপি নেতা এ্যানির বক্তব্যের প্রতিবাদে ফুঁসে উঠেছে আ.লীগ

রুবেল হোসেন, জেলা প্রতিনিধি, লক্ষ্মীপুর : কেন্দ্রীয় বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানির জ্বালাময়...

সেনবাগে ৩ ইউপি নির্বাচনে নৌকার প্রতীক পেলেন যারা

বি. চৌধুরী তুহিন নোয়াখালী প্রতিনিধি: ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে নোয়াখালী সেনবাগে আগামী ১৫ জুন...

নেত্রকোণায় বাংলাদেশ-ভারত সম্প্রীতি পরিষদের মতবিনিময়

আব্দুর রহমান ঈশান, জেলা প্রতিনিধি, নেত্রকোণা: বাংলাদেশ-ভারত সম্প্রীতি পরিষদ নেত্রকোণা জেলা শাখার উদ্যোগে শনিবার বিকেলে জেলা...

সিঙ্গাপুরের কথা বলে ভাতিজাকে বিমানে চড়িয়ে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম

কমলনগর: ভাতিজাকে সিঙ্গাপুর নিয়ে যাবে এমন আশ্বাস দিয়ে ভাইয়ের বাড়িতে স্বজনসহ দীর্ঘদিন মেহমান হিসেবে অবস্থান...