রামগঞ্জে টিসিবির চাউল-ডাল ও তৈল বিতরণে অনিয়ম দূর্নীতি লুটপাট

শেয়ার

আবু তাহের, রামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে টিসিবির পণ্য বিতরনে দূর্নীতি ও অনিয়মের লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে।

৮জুন শনিবার উপজেলার ৮নং করপাড়া ইউনিয়নের গাজীপুর রাজ্জাকিয়া জনকল্যাণ উচ্চ বিদ্যালয় গেইটের সামনে সরকারি ছুটির দিনে উপজেলা মনিটরিং (ট্যাগ) অফিসার মাধ্যমিক একাডেমিক সুপারভাইজার শরীফ উল্লা আল সামছ্ ও স্থানীয় চেয়ারম্যান জাহিদ মির্জা এবং কোন মেম্বারের উপস্থিতি ছাড়াই ৯৯৪জন সুবিধাভোগীদের মাঝে ডিলার সাকিল ষ্টোর এর বাবা মহরম আলী ও তার ভাই দিদার হোসেন টিসিবির পণ্য বিতরন কালে সরজমিনে গেলে এ অনিয়মের সত্যতা পাওয়া যায়।

অভিযোগ পেয়ে গনমাধ্যমকর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌছলে টিসিবি ডিলারের লোকজন ৯৯৪জনের মধ্যে ৩০০জনের মধ্যে বিতরন করে বাকী মালামাল নিয়ে পানপাড়া বাজার হয়ে লক্ষ্মীপুর দালালবাজার সড়কের দিকে দ্রুত চলে যায়। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ৪৭০ টাকায় ২কেজি মসুর ডাল,২কেজি সয়াবিন তৈল,পাঁচ কেজি চাউল দেওয়ার কথা থাকলে ও হাজেরা বেগম নামের এক বৃদ্ধ মহিলা ব্যাগে ৪ কেজি ৪ গ্রাম চাউল পাওয়া গছে।এভাবে আরো কয়েক টি ব্যাগ বাহিরের একটি ডিজিটাল মিটারে পরিমাপ করলে ও অনিয়ম পাওয়া যায়। এভাবে আনোয়ার হোসেন,সুফিয়া বেগম,আবুল হোসেন সহ স্থানীয়রা এসব অনিয়মের বিরুদ্ধে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। সরকারী নিয়ম অনুযায়ী ৪৭০ টাকা দামে টিসিবি পন্য বিক্রি করার কথা থাকলেও শাকিলের বাবা মহুরম আলী ৪৮০টাকা করে প্রত্যেক সুবিদাভোগীদের কাছ থেকে আদায় করেছেন।

উপকারভোগী সামছুল আলম জানান, ডিজিটাল মিটার গাড়ীতে রেখে পণ্য পরিমাপ করায় সবাইকে ৫কে কেজি চাউলের স্থলে সাড়ে কেজি,২কেজি মুসুরী ডালের ক্ষেত্রে দেড় কেডি ডাল মাপে কম দিয়েছে। এজন্য আমরা সাকিল ষ্টোরের লাইসেন্স বাতিল ও তার শাস্তি দাবি করছি।

বিষটি নিয়ে ডিলার সাকিল ষ্টোর এর বাবা মহরম আলীর কাছে জানাতে চাইলে তিনি বলেন, মোট সাড়ে ৯৯৪ জনের মাঝে এ পণ্য বিতরন হবে। শত শত লোকজনের মাঝে বিতরন করতে গেলে টুকটাক ভুল হতেই পারে। এটা কোন দোষ নয়। আর অেকজন আসতেছেনা আমরা মাল নিয়ে বসে রয়েছি।

স্থানীয় চেয়ারম্যান জাহিদ মির্জা জানান,আগে পণ্য বিতরনে আমরা কোন অনিয়ম পাইনি আজকে তারা মাপে কম দিয়েছে বলে অভিযোগ পেলাম,আমি বিষয় টি আমার উর্ধবতন কর্মকর্তা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছাঃ শারমিন ইসলাম এর সাথে কথা বলবো ম্যাডাম আইনগত ভাবে ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।

ট্যাগ অফিসার মাধ্যমিক একাডেমিক সুপারভাইজার শরীফ উল্ল্যা সামছ্ জানান, টিসিবি মালামাল উত্তোলন ও বিতরনের বিষয়ে সাকিল ষ্টোরের লোকজন গোপনে বিক্রি ও সুবিদাভোগী নিকট সরবরাহ করেছে। অতীতেও সে গোপনে এমন অনিয়মের কর্মকান্ড করেছে। তদন্ত করে তার বিরুদ্ধো বিধিমোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) দেবব্রত দাশ জানান,চাউল বা কোন পণ্য কম দেওয়ার কোন নিয়ম নেই।

উপজেলা নির্বার্হী কর্মকর্তা মোছাঃশারমিন ইসলাম ট্রেনিং রয়েছে, আমি অনিয়মের বিষয়টি তার সাথে যোগাযোগ করে আপনাদের জানাবো।

সম্পর্কিত খবর

No widgets found. Go to Widget page and add the widget in Offcanvas Sidebar Widget Area.