রামগঞ্জে গৃহবধুর হাত পা বেঁধে নির্যাতন, মালামাল লুট

শেয়ার

রামগঞ্জ:
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে জান্নাতুল ফেরদাউস রিতা (১৯) নামের এক গৃহবধুকে গামছা দিয়ে হাত পা বেঁধে রাতের আধাঁরে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুধু তাই নয় ওই সময় দুবৃত্তরা নির্যাতন শেষে ঘরে থাকা ৭ভরি স্বর্নালংকার, সম্পত্তির দলিলসহ প্রয়োজীয় কাগজপত্র ও নগদ ২লাখ টাকাসহ ৫লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়।

শুক্রবার গভীর রাতে  উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামের শেখের বাড়ির সাবেক মেম্বার আবুল বাশারের বসত ঘরে ঘটনাটি ঘটে। স্থানীয় লোকজন গৃহবধু রিতাকে উদ্ধার করে রামগঞ্জ সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করেছে। রামগঞ্জ থানা পুলিশের এস আই মোখলেছুর রহমান ঘটনাস্থল (হাসপাতাল) পরিদর্শন করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে নোয়াগাঁও শেখের বাড়ির আবুল বাসারে বিল্ডিংয়ের ছাদের দরজা ভেঙ্গে ৭/৮ জনের মুখোশপরা দুবৃত্তের দল ভিতরে প্রবেশ করে দেশীয় অস্ত্রের মূখে সবাইকে জিম্মি করে গৃহবধু রিতার  কাছে ষ্টিলের আলমেরীর চাবি চাইলে না দিলে তাকে এলোপাড়াড়ি পিটিয়ে গুরুতর আহত করে স্বর্নালংকার, সম্পত্তির দলিলসহ প্রয়োজীয় কাগজপত্র ও নগদ ২লাখ টাকাসহ ৫লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়।
এ বিষয়ে গৃহবধু জান্নাতুল ফেরদাউস রিতা জানান, আলমেরী ও ওয়াড্রপের চাবি না দেওয়ায় মারধর সহ নির্যাতন চালিয়েছে। পরে আমার শশুর শাশুড়ী চিৎকার দিলে তারা চলে যায়।
রামগঞ্জ থানার এসআই মোখলেছুর রহমান জানান, ঘটনা শুনে হাসপাতালে গিয়ে গৃহবধুকে দেখেছি। বিষয়টি নিয়ে আরো অনেক রহস্য আছে। তদন্ত শেষে বিস্তারিত বলা যাবে।

 

No widgets found. Go to Widget page and add the widget in Offcanvas Sidebar Widget Area.