গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় অনুমোদিত

রবিউল আউয়াল মাসের আমাদের শিক্ষা

বছর ঘুরে আবার আমাদের মাঝে উপস্থিত হয়েছে রবিউল আউয়াল মাস। ইসলামে এটি গুরুত্বপূর্ণ ও ঐতিহাসিক মাস। এ মাসে পাপাচার ও মূর্খতার নিকশ কালো রাতের পর সৌভাগ্যের আলোঝলমলে দিনের সূচনা হয়েছিল। শরতের নির্জীব শুষ্কতার পর বসন্তের প্রাণ সজীব সমীরণ প্রবাহিত হয়েছিল।

এ মাসে সেই মহামানব পৃথিবীর বুকে আগমন করেছিলেন, যিনি জীবন সায়াহ্নে উপনীত মানবতাকে উদ্ধার করেছিলেন এবং অন্ধকারে নিমজ্জিত মানুষগুলোকে এক খোদার আলোকিত পথের সন্ধান দিয়েছিলেন, যিনি শয়তানের প্রভুত্ব দূর করে দুনিয়াজুড়ে আল্লাহর হুকুম প্রতিষ্ঠা করেছিলেন এবং মিথ্যার পতন ঘটিয়ে সত্যের কেতন উড্ডীন করেছিলেন।
মহানবী (সা.) এর এ ধরণিতে শুভাগমনের মাস এটি। যখনই এ মাস আসে মুসলমানদের অন্তরে নবীপ্রেমের এক নতুন হাওয়া জাগে। আবার সঙ্গে সঙ্গে অন্তরকে ঘিরে ধরে এক ধরনের বিষাদের কালো ছায়া। কারণ এ মাসেই তিনি ইন্তেকাল করেছিলেন।

রসুল (সা.)-কে ভালোবাসা ইমানের অঙ্গ। কোরআনে কারিমে আল্লাহতায়ালা বলেন, ‘হে নবী! আপনি বলুন, যদি তোমরা আল্লাহকে ভালোবাসতে চাও, তবে আমার অনুসরণ কর, তাহলে আল্লাহ তোমাদের ভালোবাসবেন এবং তোমাদের পাপগুলো ক্ষমা করে দেবেন’। (সুরা আলেইমরান)।

হাদিস শরিফে রসুল (সা.) বলেন, ‘ওই সত্তার শপথ! যার হাতে আমার প্রাণ, তোমাদের কেউ ততক্ষণ পর্যন্ত পরিপূর্ণ মুমিন হতে পারবে না, যতক্ষণ আমি তার কাছে তার পিতা-মাতা, সন্তান-সন্ততি ও সব মানুষ থেকে প্রিয় না হব’। (বুখারি ও মুসলিম)। তবে এ ভালোবাসার প্রকাশ ঘটবে রসুল (সা.)-এর জীবন সাধনা, দীন ও শরিয়তের প্রতি অকুণ্ঠ সমর্থন ও সমর্পণের মাধ্যমে।

এ মর্মে আল্লাহতায়ালা বলেন, রসুল তোমাদের যা দেন তা গ্রহণ কর, আর তোমাদের যা থেকে নিষেধ করেন তা থেকে বিরত থাক। (সুরা হাশর)।

রসুল (সা.) এর জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে রয়েছে আমাদের জন্য অনুকরণীয় আদর্শ। এ প্রসঙ্গে কোরআনে কারিমে আছে, রসুলের মধ্যে রয়েছে তোমাদের জন্য উত্তম আদর্শ-এমন ব্যক্তির জন্য, যে আল্লাহ ও আখেরাত দিবসের আশা রাখে এবং আল্লাহকে অধিক পরিমাণ স্মরণ করে। (সুরা আহজাব)।

মনে রাখতে হবে রসুলের প্রতি এ ভালোবাসা শুধু রবিউল আউয়াল মাসেই সীমাবদ্ধ নয়, বরং জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত প্রতি মুহূর্তে সিরাত চর্চা করা, তাঁর সুন্নতের অনুসরণ করা ও তাঁর আদর্শকে নিজের জীবনে বাস্তবায়ন করা জরুরি। এটিই রবিউল আউয়াল মাসের মূল শিক্ষা। কিন্তু পরিতাপের বিষয় হলো- রবিউল আউয়াল মাস এলে আমরা প্রিয় নবী (সা.) এর প্রেম, আবেগ-ভালোবাসায় উজ্জীবিত হই।

কিন্তু মাসটি চলে গেলে সেই আবেগ-অনুভূতি ও ভালোবাসা আর থাকে না। তাইতো কবি নজরুল বলেছিলেন, ‘রবিউল আউয়াল এলে তোমারই গান গাই; রবিউল আউয়াল গেলে তোমায় ভুলে যাই’। এটি মুসলিম উম্মাহর জন্য একটি কঠিন সতর্ক বার্তা। এমনটি যেন কোনোভাবেই না হয়।

বিশ্বনবী (সা.) এর অতুলনীয় সুমহান আদর্শ নিজেদের জীবনে ধারণ ও বাস্তবায়ন করার প্রচেষ্টাই মুসলিম উম্মাহর রবিউল আউয়াল মাসের শিক্ষা। আল্লাহতায়ালা আমাদেরকে এর ওপর আমল করার তৌফিক দান করুন। আমিন।

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ

রায়পুর কলেজে ক্রীড়া বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের রায়পুর সরকারি কলেজে বার্ষিক সাহিত্য সংস্কৃতি ও অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে কলেজ মিলনায়তনে এ...

পরীমনির মামলায় নাসির ও আমিরের জামিন

চিত্রনায়িকা পরীমনির দায়ের করা ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার মামলায় ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ এবং তুহিন...

তথ্যমন্ত্রীকে নিয়ে অপপ্রচার; ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দুই মামলা

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ সম্পর্কে অসত্য তথ্য ও ছবি বিকৃতি করায়...

র‌্যাবের হাতে আটক মেয়র আব্বাস আলী

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল স্থাপন নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভার...

ছাত্রলীগ নেতা হত্যা মামলায় প্রধান আসামি কারাগারে

রামগঞ্জ প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ছাত্রলীগ নেতা সাজ্জাদুর রহমান সজিব হত্যা মামলার প্রধান আসামি...

সিরাজগঞ্জে দৈনিক নবচেতনা পত্রিকার ৩০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিক পালিত

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি ব্যাপক আনন্দ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে বহুল প্রচলিত দৈনিক নবচেতনা পত্রিকার ৩০ তম প্রতিষ্ঠা...