ক্যালিফোর্নিয়ার লস অলিভসে প্রয়াত মাইকেল জ্যাকসনের ‘দি নেভারল্যান্ড র‍্যাঞ্চ’ নামের বাড়িটি অবশেষে কিনে নিয়েছেন তারই এক সাবেক বন্ধু রন বার্কলে।

বার্কলের একজন মুখপাত্র এই তথ্য জানিয়েছেন।
এ সংক্রান্ত রেকর্ড ও চুক্তির সাথে জড়িত তিন ব্যক্তিকে উদ্ধৃত করে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানিয়েছে, এজন্য বার্কলে ২২ মিলিয়ন পাউন্ড বা দুই কোটি বিশ লাখ ডলার পরিশোধ করেছেন। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২৫৩ কোটি ২৮ লাখ ৫১ হাজার টাকা।

প্রায় দুই হাজার সাতশ’ একর জমির ওপর বাড়িটি ২০১৫ সালে বিক্রির জন্য তালিকাভুক্ত করে দাম চাওয়া হয়েছিল ১০০ মিলিয়ন বা দশ কোটি ডলার।

এরপর থেকে এর দাম ওঠানামা করছিল। গত বছর সর্বনিম্ন ৩১ মিলিয়ন ডলারে তালিকাভুক্ত করা হয়।

১৯৮৭ সালে জ্যাকসন নিজে ১ কোটি ৯৫ লাখ ডলারে বাড়িটি কিনেছিলেন এবং খ্যাতির চূড়ায় থাকার সময়ে এখানেই তিনি বসবাস করতেন।

তিনি এটিকে একটি বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত করেন যার মধ্যে একটি চিড়িয়াখানাও ছিল।

তবে ’৯০ ও এর পরবর্তী দশকে নেভারল্যান্ড ছিল মাইকেল জ্যাকসনের বিরুদ্ধে ওঠা শিশু যৌন হয়রানির কয়েকটি অভিযোগ তদন্তের মূল কেন্দ্র।

নেভারল্যান্ডকে তরুণ বালকদের গ্রুমিংয়ের জন্য ফ্যান্টাসি ওয়ার্ল্ড হিসেবে ব্যবহারের অভিযোগ সবসময় প্রত্যাখ্যান করেছেন মাইকেল জ্যাকসন।

এর মধ্যে ১৩ বছরের একটি ছেলেকে হয়রানির অভিযোগে বিচারের মুখোমুখি হয়ে খালাস পেয়েছিলেন তিনি।

তার মৃত্যুর পরে নেভারল্যান্ডের নতুন নামকরণ হয় সিকামোর ভ্যালি র‍্যাঞ্চ হিসেবে এবং এরপর ব্যাপক সংস্কার করা হয়।

যিনি বাড়িটি কিনেছেন, সেই বার্কলে’র মুখপাত্র বলেন যে এই বিনিয়োগকে ল্যান্ড ব্যাংকিং সুবিধা হিসেবে দেখছেন বার্কলে।

৬৮ বছর বয়সী এই ব্যবসায়ীর ২৪ ডিসেম্বর, ২০২০ তারিখ পর্যন্ত সম্পদের পরিমাণ প্রায় ১ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলার। সূত্র: বিবিসি বাংলা

Print Friendly, PDF & Email

রিপ্লাই দিন:

আপনার কমেন্ট দিন
দয়া করে নাম লিখুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.