মঙ্গলবার, ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ ,৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় অনুমোদিত, রেজি:নং ৭৮

বদলে যাচ্ছে চিড়িয়াখানার চেহারা

Array

ঢাকার মিরপুরে অবস্থিত জাতীয় চিড়িয়াখানার চেহারা বদলে যাচ্ছে। এটিকে বিশ্বমানের একটি আধুনিক চিড়িয়াখানা হিসেবে তৈরি করতে আমুল পরিবর্তন আনা হচ্ছে। এজন্য দেশি বিদেশি পরামর্শকদের সমন্বয়ে একটি মাস্টারপ্ল্যানও করা হচ্ছে।

প্রাথমিকভাবে এই মাস্টারপ্ল্যান তৈরিতে বুয়েটের বিশেষজ্ঞ দলকে দায়িত্ব দেয়া হবে। পরবর্তীতে বুয়েট টিম বিদেশি পরামর্শকদের সঙ্গে নিয়ে কাজ করবে।

আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি মৎস ও প্রাণিসম্পদ অধিদফতর মাস্টারপ্ল্যান তৈরিতে বুয়েটের সঙ্গে চুক্তি করবে। গত সোমবার চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

চিড়িয়াখানার কিউরেটর এসএম নজরুল ইসলাম বলেন, ঢাকার জাতীয় ও রংপুরের চিড়িয়াখানা উন্নয়নে একটি বড় প্রকল্প হাতে নেয়ার কথা রয়েছে। গত বছর এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব পরিকল্পনা কমিশনে পাঠায় প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়। কিন্তু কমিশন এই প্রকল্প অনুমোদনের আগে একটা মাস্টারপ্ল্যান প্রস্তুতির নির্দেশ দেয়।

এই অবস্থায় মাস্টারপ্ল্যান তৈরিতে বুয়েটের বিশেষজ্ঞ ও বিদেশি এক্সপার্টদের পরামর্শ নেয়া হবে। এজন্য আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি বুয়েটের স্থাপত্য বিভাগের সঙ্গে এক চুক্তি স্বাক্ষর করা হবে। চুক্তির পরবর্তী এক বছরের মধ্যে মাস্টারপ্ল্যান শেষ হবে বলে তিনি জানান।

‘ঢাকা ও রংপুর চিড়িয়াখানা আধুনিকায়ন’ শীর্ষক প্রকল্পের সংশ্লিষ্টরা জানান, বর্তমান চিড়িয়াখানার পরিবেশ সম্পূর্ণ পরিবর্তন করে ভূপ্রাকৃতিক, অবকাঠামোগত উন্নয়ন এবং প্রাণীবান্ধব করে গড়ে তোলা হবে। নতুন এই চিড়িয়াখানায় যেমন প্রাণীদের জন্য রাখা হচ্ছে সম্পূর্ণ বন্য পরিবেশ, তেমনই দর্শকদের জন্যও থাকবে আধুনিক সব সুযোগ-সুবিধা।

জানা গেছে, এই প্রকল্পে জাতীয় চিড়িয়াখানার ১৮৬ একর জমিকে পুরোপুরি ব্যবহার করা হবে। জাতীয় চিড়িয়াখানার বর্তমান অবকাঠামো পরিবর্তন করে দর্শকদের জন্য একমুখী রাস্তা তৈরি করা হবে।

চিড়িয়াখানা এলাকার উন্নয়নের মধ্যে রয়েছে, প্রধান ফটক এবং অন্যান্য ছোট ফটক (শিশু পার্ক), সুরক্ষা দেয়াল, দিক নির্দেশক, সব শ্রেণির মানুষের সহজে যাতায়াতের জন্য সিড়ি, দর্শকদের জন্য বসার ব্যবস্থা (ফুটপাত এবং পার্কে ছাউনি এবং ছাউনি ছাড়া), রেলিং, সড়ক দ্বীপ, রোড ডিভাইডার ও বিভিন্ন গাছের পাত্র, রাস্তায় এবং বাগানে আলোর ব্যবস্থা, ফুট ওভারব্রিজ, আন্ডারপাস, দর্শকদের জন্য আলাদা রাস্তা (একমুখী) এবং দেয়াল ও বনায়ন (ভূপ্রাকৃতিক)

তথ্যমতে, চিড়িয়াখানার পশু-পাখির খাঁচাকে সম্পূর্ণভাবে বন্য আবহে তৈরি করতে একজন জাপানি জু-আর্কিটেকচার এবং একজন জু-কনসালটেন্টের সহায়তা নেয়া হবে। প্রচলিত পদ্ধতির প্রাণী খাঁচাকে বদলে আধা প্রাকৃতিক, প্রাণীবান্ধব ও তিন স্তরের নিরাপত্তা বলয় বিশিষ্ট খাঁচা তৈরি করা হবে।

দর্শকদের জন্য খাঁচার নিরাপত্তায় স্টিল গ্রিলের সঙ্গে বিশেষায়িত কাচের আবরণ ব্যবহার করা হবে। এছাড়াও ব্যবহার হবে লোহার জাল। বিশেষ কাচের দেয়াল থাকায় দর্শকরা সবচেয়ে কাছ থেকে প্রাণীদের দেখতে পারবে। প্রত্যেক প্রাণীর নিজস্ব আবাসস্থলের মত পরিবেশ তৈরি করতে খাঁচার ভেতরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকবে স্ব-নিয়ন্ত্রিত বৈদ্যুতিক ব্যবস্থা।

এছাড়াও উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় চিড়িয়াখানায় বসানো হবে দুষ্প্রাপ্য প্রাণীদের দশটি ম্যুরাল।

চিড়িয়াখানার কিউরেটরের দফতর, একটি প্রধান এবং চারটি নিরাপত্তা অফিস, প্রাণী হাসপাতাল ছাড়াও কর্মকর্তাদের জন্য নতুন একটি অফিসার্স কোয়ার্টারও তৈরি করা হবে এ প্রকল্পের আওতায়।

সর্বশেষ

কেকেএসপি’র উদ্যোগে মাসব্যাপী ফুটবল প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের উদ্বোধন

খুলনা প্রতিনিধি:- পাইকগাছার কপিলমুনির ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কেকেএসপি'র পরিচালনায় উদ্বোধন হলো মাসব্যাপী ফুটবল প্রশিক্ষণ ক্যাম্প-২০২৩।সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৩টায় কপিলমুনি সহচরী বিদ্যামন্দির স্কুল এন্ড...

ভেজাল ও নকল ওষুধ তৈরি করলে যাবজ্জীবন, চূড়ান্ত অনুমোদন

ভেজাল ও নকল ওষুধ তৈরি করলে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রেখে ঔষধ আইন ২০২৩ এর...

দেশের জনসংখ্যা বেড়ে ১৬ কোটি ৯৮ লাখ

বাংলাদেশের জনসংখ্যা বেড়ে ১৬ কোটি ৯৮ লাখ ২৮ হাজার ৯১১ জনে দাঁড়িয়েছে। জনশুমারি ও...

কোহলি-রোহিতের সংঘাত নিয়ে যা বললেন কোচ

ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২৪০ রানের টার্গেট তাড়ায় ২২২...

তিন ফসলি জমি ধ্বংস না করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

দেশের যেসব জমিতে তিনটি ফসল হয় সেসব জমি উন্নয়ন প্রকল্প নেওয়ার সময় ধ্বংস না...

তুরস্কে আবারও ৭.৬ মাত্রার তীব্র ভূমিকম্প, মৃত্যু বেড়ে প্রায় দুই হাজার

সোমবার ভোররাতে হওয়া ৭.৮ মাত্রার ভয়াবহ ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছে তুরস্ক। এতে হাজার হাজার মানুষের...