পাকিস্তানে মাজারে আত্মঘাতী হামলা, নিহত ৭০, আহত ১৫০

শেয়ার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশের সেহ্ওয়ান এলাকার সুফিসাধক লাল শাহবাজ কলন্দরের মাজারে এক আত্মঘাতী বোমা হামলায় কমপক্ষে ৭০ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন ১৫০ জনেরও বেশি।

আহতদের অনেকের অবস্থা গুরুতর। অনেক আহতকে হেলিকপ্টারে করে ১৯৩ কিলোমিটার দূরবর্তী করাচি শহরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সিন্ধু প্রদেশের পুলিশের আইজি এ.ডি খাজা।

বৃহস্পতিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানায় পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ডন।

খবরে বলা হয়, সিন্ধু প্রদেশের সেহ্ওয়ান শহরে সুফি সাধক লাল শাহবাজ কলন্দরের মাজারে ধর্মীয় অনুষ্ঠান চল‍ার সময় এই নৃশংস হামলার ঘটনা ঘটে।

সিন্ধু প্রদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সিকান্দার মান্দ্রো জানান, ওই মাজারে অনুষ্ঠান চলার সময় পাকিস্তানের বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রচুর সংখ্যক মানুষ সমবেত হয়েছিলেন। বিস্ফোরণের পরপরই ঘটনাস্থলে আইনশৃঙ্খলা ও উদ্ধারকর্মীরা গিয়ে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেন।

সেহ্ওয়ান পুলিশের একজন এএসপি জানান, হামলাকারী দুর্বৃত্ত মাজারটির ‘গোল্ডেন গেট’ দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করে। ঢোকার পরপরই সে প্রথমে একটি গ্রেনেডের বিস্ফোরণ ঘটায়। এরপর সে তার শরীরে বাঁধা শক্তিশালী একটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। ওই সময় ভক্ত ও আশেকানরা আধ্যাত্মিক ধামাল গান উপভোগ করেছিলেন।

বিস্ফোরণের পরপরই সেখানে এক নারকীয় দৃশ্যের অবতারণা হয়। চারপাশে রক্ত, আহাজারি আর আহত-নিহতদের ছিন্নভিন্ন দেহাংশ ছড়িয়ে পড়ে।

সেখানে অন্তত ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানায় পুলিশ। তবে মৃতের সংখ্যা আর্ও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা।

উদ্ধারকাজে সেনাবাহিনীসহ বিভিন্ন বাহিনী অংশ নিয়েছে। বেশ কয়েকটি সামরিক হেলিকপ্টার অকুস্থলের দিকে উড়ে গেছে।

সিন্ধু প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী সাঈদ মুরাদ আলি শাহ সবাইকে শান্ত থাকতে আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি সবাইকে উদ্ধারকাজে সহায়তার্ও আহ্বান জানিয়েছেন।

No widgets found. Go to Widget page and add the widget in Offcanvas Sidebar Widget Area.