গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় অনুমোদিত

দেশে সাংবাদিকতার পরিস্থিতি নিয়ে হাইকোর্টের প্রশ্ন

দেশের সাংবাদিকতার পরিস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন তোলেছে হাইকোর্ট। দুদকের এক কর্মকর্তার আদেশ নিয়ে ভুল সংবাদ পরিবেশন বিষয়ে শুনানির সময় আদালত বলেন, সাংবাদিকতার নামে এসব কী হচ্ছে। আজ মঙ্গলবার শুনানির এক পর্যায়ে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ বলেন, ‘সাংবাদিকতার নামে কী হচ্ছে দেখেন না। কী এক (হেলেনা) জাহাঙ্গীর বেরিয়েছে। আইপিটিভি নামে কত চ্যানেল, কত টিভি।’

দুদকের এক কর্মকর্তার বদলি আদেশ নিয়ে ভুল সংবাদ করায় চট্টগামের বেশ কিছু স্থানীয় পত্রিকা বিষয়ে আলোচনা করাই শুনানির মূল বিষয় ছিল। শুনানির শুরুতেই দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান আদালতকে জানান, চট্টগ্রামের পত্রিকাটি সংশোধনী ছেপেছে। এই ভুলের জন্য তারা ক্ষমা প্রার্থনা করেছে।

তিনি বলেন, ‘আদালতের আদেশ নিয়ে যে আইনজীবী সার্টিফায়েড কপি দিয়েছে সেটিকে আমার কাছে জাল মনে হয়েছে। তার কারণ জজ সাহেবের নামও ভুল লিখেছে।’

তখন বিচারক আদালত বলেন, ‘এটা জাল হয়ে থাকলে এর দায়ভার পিটিশনারকে নিতে হবে। এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার আদেশ হবে। আরো যদি কোনো তথ্য থাকে তাহলে দেন। কারণ এটা ধরে নিতে হবে পিটিশনার এবং তার আইনজীবী এটা করেছেন।’

এ সময় দুদক আইনজীবী যেসব পত্রিকায় ওই সংক্রান্ত নিউজ ছাপা হয়েছিল তার নাম উল্লেখ করেন। তখন বিচারক বলেন, ‘আপনি সবগুলাতে যোগাযোগ করেন। আপনার অফিস থেকে তাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেন।’

দুদক আইনজীবী বলেন, ‘চট্টগ্রামের যে দৈনিক রিপোর্টার পাবলিশ করেছে তাদের পক্ষ থেকে আমাকে বলেছেন, অনেকগুলো পত্রিকায় তারা দেখে ছেপেছে। এরপরো তারা ক্ষমা চেয়েছেন। এছাড়া আমি দুদক অফিসে জানিয়েছি।

তিনি বলেন, ‘এখন কমিশনের সিদ্ধান্ত হলো যদি এই নিউজ বা রিটের পেছনে দুদকের কোনো কর্মকর্তা কর্মচারীর ইন্ধন থাকে, তাহলে দুদক তার নিজস্ব ইনটেলিজেন্সির মাধ্যমে খাতিয়ে দেখবে। এরপরও আদালত যে নির্দেশ দেবে সে অনুযায়ী দুদক পদক্ষেপ নেবে।’

তখন বিচারক বলেন, ‘মৌখিকভাবে শুনলাম। সামগ্রিক বিষয়ে বৃহস্পতিবার আদেশ দেব। এক পর্যায়ে বিচারক সাংবাদিকতার নামে কী হচ্ছে দেখেন না। কী এক জাহাঙ্গীর বেরিয়েছে আইপি টিভি, কত চ্যানেল, কত টিভি।’

দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় চট্টগ্রাম-২ এর উপসহকারী পরিচালক মো. শরীফ উদ্দিনের বদলির আদেশ স্থগিত করেছে হাইকোর্ট- এমন শিরোনামে গত বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হয়। অথচ হাইকোর্ট এমন কোনো আদেশই দেয়নি।

বিষয়টি সোমবার আদালতের নজরে আনা হলে আদালত দুদক আইনজীবীকে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে নির্দেশ দেয়। পরে দুদক আইনজীবী খুরশীদ আলম খান চট্টগ্রামের দৈনিক পত্রিকার সংশ্লিষ্ট রিপোর্টারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তখন তিনি জানান, চট্টগ্রামের বেশ কয়েকটি পত্রিকায় নিউজ দেখে তারাও রিপোর্টটি করেছে। তারা নিজেদের ভুল স্বীকার করে সংশোধনীও ছেপেছে এবং আদালতের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ

তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে ডা. মুরাদ হাসানকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামীকালের মধ্যে তাকে এই পদত্যাগপত্র জমা দিতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর...

‘পরীক্ষা না থাকলেও পঞ্চম-অষ্টমে বৃত্তি ও সনদ থাকবে’

শিক্ষাক্রমের পরিবর্তনের কারণে পঞ্চম ও অষ্টম শ্রেণির সমাপনী পরীক্ষা না থাকলেও বৃত্তি ও সনদের...

শেরপুর কৃষি প্রশিক্ষণ ইনষ্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনীর প্রস্তুতিমূলক সভা

শেরপুর: শেরপুর কৃষি প্রশিক্ষণ ইনষ্টিটিউটের ১ম, ২য় ও ৩য় ব্যাচের শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী করার লক্ষ্যে প্রস্তুতিমূলক...

বৃষ্টি উপেক্ষা করেও সারাদেশে হাফ পাশ ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে লক্ষ্মীপুরে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

জুনাইদ আল হাবিব: শুধু ঢাকা-চট্টগ্রাম নয়, সারাদেশে যাত্রীবাহী বাসে শিক্ষার্থীদের হাফ পাশ নিশ্চিতের দাবিতে...

গাজীপুর জেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের নির্বাচিত কমিটির শপথ গ্রহণ

গাজীপুর: গাজীপুর জেলা রিপোর্টার্স ক্লাবে ২০২১-২২ কার্যমেয়াদের নব-নির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটির শপথ গ্রহণ, আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত...

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট শিশু তামিমকে ৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার আদেশ

লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে পল্লী বিদ্যুতের খুঁটিতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গুরুতর আহত পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র তামিম ইকবালকে...