শুক্রবার, ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ ,৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় অনুমোদিত, রেজি:নং ৭৮

জাতীয়করণ: ৩০ জুনের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা চান শিক্ষকরা

Array

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে চলতি বছরের ৩০ জুনের মধ্যে দেশের সব মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের ঘোষণা চান শিক্ষক নেতৃবৃন্দ। এবং ২০১৮ খ্রিস্টাব্দের জুলাইয়ের মধ্যে জাতীয়করণ বাস্তবায়ন শুরু করতে হবে। রোববার (২১শে মে)ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আয়োজিত সমাবেশে শিক্ষক নেতৃবৃন্দ এমন দাবি করেন।

সমাবেশে শিক্ষক প্রতিনিধিরা ১৫ দফা দাবি উত্থাপন করেন।

দাবিগুলো হচ্ছে- আগামী ৩০ জুনের মধ্যে মাধ্যমিক স্কুল জাতীয়করণ এবং ২০১৮ সালের ১ জুলাইয়ের মধ্যে বাস্তবায়নের দাবি জানিয়েছে মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা জাতীয় লিঁয়াজো কমিটি। শিক্ষা ক্ষেত্রে বিদ্যমান বৈষম্য দূরীকরণের লক্ষ্যে বিক্ষিপ্ত ও বিচ্ছিন্নভাবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ বন্ধ করে এক সাথে মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা জাতীয়করণ করতে হবে। সমগ্র জাতিকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দক্ষ সম্পদে পরিণত করার লক্ষ্যে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত জাতীয়করণের আওতায় বাধ্যতামূলক শিক্ষা ঘোষণা। সরকারি স্কুলের প্রধান শিক্ষকের ন্যায় বেসরকারি স্কুলের প্রধান শিক্ষকদের ৬ নম্বর গ্রেড তথা ৩৫৫০০ টাকার স্কেল বেতন প্রদান করার দাবি করেন তারা।

দাবির মধ্যে আরও রয়েছে, জনবল কাঠামো সংশোধন করে একজন শিক্ষক প্রথম চাকুরীতে যোগদান থেকে ৮ বছর সময় পর্যন্ত সহকারী শিক্ষক পদ মর্যাদাধারী হবেন। ৮ বছর সফল চাকরীর পর তাঁর পদবী হবে সিনিয়ির সহকারী শিক্ষক, ১২ বছর চাকরীর পর তাঁর পদবী হবে সিনিয়র শিক্ষক। পরবর্তীতে সহকারী শিক্ষক এবং প্রধান শিক্ষক। তাদের দাবির মধ্যে আরও রয়েছে পরিপত্রে আরোপিত শর্তের কারণে কম্পিউটার শিক্ষাসহ অন্যান্য বিষয়ে নিয়োগকৃত শিক্ষকগণ সরকারি বেতন পাচ্ছেন না, অনতিবিলম্বে পরিপত্র বাতিল পূর্বক নিয়োগকৃত শিক্ষকদের সারকারি বেতনের ব্যবস্থা করতে হবে। একই প্রতিষ্ঠানে কৃষি ও গার্হস্থ্য বিজ্ঞান উভয় বিষয়ের পদ সৃষ্টি পূর্বক শিক্ষক নিয়োগের ব্যবস্থা গ্রহণ এবং সরকারি বেতন প্রদান করতে হবে।

দাবির মধ্যে আরও রয়েছে, জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ এর দ্রুত বাস্তবায়নসহ শিক্ষার মানোন্নয়নের লক্ষ্যে পাঠ্যবই পরিমার্জন, প্রশ্নপত্র ও পরীক্ষা পদ্ধতির আরও সংস্কার করার দাবী তুলে ধরেন শিক্ষক প্রতিনিধিরা। বিষয় ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগ করারও দাবি করেন তারা। বার্ষিক ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ও বৈশাখী ভাতা বকেয়া হিসাব প্রদান করতে হবে। পাহাড়ী অঞ্চলে কর্মরতদের পাহাড়ী ভাতা দিতে হবে। একই সাথে ইউনেস্কো ও আইএলও এর সুপারিশের আলোকে শিক্ষাখাতে জিডিপির ৬ শতাংশ বরাদ্দ রাখার দাবী করেন তারা। প্রত্যেক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে একই প্রশাসনের অধীনে কারিগরি শিক্ষা শাখা চালুর করতে হবে।

অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক কর্মচারিদের অবসর গ্রহণ থেকে ৬ মাসের মধ্যে অবসর ও কল্যাণ ভাতা প্রদান ব্যবস্থা এবং শিক্ষক-কর্মচারি নিয়োগে ক্ষেত্রে পোষ্য কোটা চালুর দবিও করেন তারা।

সর্বোচ্চ সংখ্যক শিক্ষক-কর্মচারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত বিধায় অবসর সুবিধা বোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্টের মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে সদস্য সচিব নিয়োগ করা দাবি করা হয় শিক্ষক সমাবেশে। স্বীকৃতিপ্রাপ্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত সরকারি বেতন বিহীন শিক্ষক -কর্মচারিদের সরকারি বেতন প্রদানের ব্যবস্থা করতে হবে। এছাড়া পৃথক ভাবে মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর চালু করতে হবে।

১৫-দফা দাবির সর্বশেষ হলো: মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরসহ শিক্ষা বোর্ড কর্মকর্তা পদে মাধ্যমিক শিক্ষকদেরকে প্রেষণে নিয়োগ ব্যবস্থা।

সমাবেশে যৌথভাবে দাবিগুলো তুলে ধরেন মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা জাতীয় লিঁয়াজো কমিটির আহবায়ক ড. মো: ইদ্রিস আলী, বাশিস যুগ্ম আহবায়ক ও মহাসচিব জসিম উদ্দিন আহমেদ, যুগ্ম আহবায়ক মো: নূরুল ইসলাম, সদস্য সচিব প্রদীপ কুমার সাহা।

সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ ও বিশেষ অতিথি থাকবেন সাবেক শিক্ষা সচিব ও শিক্ষা বিষয়ক দেশের একমাত্র জাতীয় পত্রিকা দৈনিক শিক্ষাডটকম’র প্রধান উপদেষ্টা মোঃ নজরুল ইসলাম খান।

মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা জাতীয়করণের দাবীতে আয়োজিত সমাবেশে সকাল সাড়ে নয়টায়র মধ্যে সহস্রাধিক শিক্ষক-কর্মচারী জমায়েত হয়েছেন ঢাকার রমনা এলাকার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে।

মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা জাতীয়করণের দাবি নিয়ে সভা সমাবেশ করার লক্ষ্যে গঠিত দুইটি শিক্ষক সংগঠনের লিয়াজোঁ কমিটির আয়োজনে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সমাবেশে উপস্থিত হয়েছেন এমন কয়েকজন শিক্ষক  জানান, সারাদেশ থেকে শিক্ষকরা আসছেন। তারা আশা করছেন পাঁচা হাজারের বেশি শিক্ষক-কর্মচারী অংশ নেবেন।

সমিতির নেতা  মো: ইদ্রিস আলী ও প্রদীপ কুমার সাহাও বক্তৃতা করেন।

সমাবেশে ঢাকার উত্তরার কাচকুরা উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন খান বলেন, প্রাথমিক শিক্ষা জাতীয়করণে সাবেক প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মো: আফছারুল আমীন ও প্রতিমন্ত্রী মোতাহের হোসেন সরকারের সঙ্গে সার্বক্ষণিক লিয়াজোঁ করেছেন ঠিক একইভাবে প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দকে অনুরোধ জানান মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণে ভূমিকা রাখার।

সর্বশেষ

নোয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী পিন্টুর সমর্থনে মত বিনিময় সভা

মো. বদিউজ্জামান ( তুহিন), নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আব্দুল ওয়াদুদ পিন্টুর চশমা মার্কার সমর্থনে সদর উপজেলা ও...

লক্ষ্মীপুরে ৭ শিক্ষার্থীকে দাখিল পরীক্ষা দিতে দেয়নি হল সচিব

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: ২৯ সেপ্টেম্বর (বৃহস্পতিবার) পরীক্ষা থাকা না থাকা বিভ্রান্তিতে পড়ে লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে জীববিজ্ঞান বিষয়ের...

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে; লক্ষ্মীপুরে উন্নয়নের চিত্রাংকন প্রতিযোগীতা

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিনে লক্ষ্মীপুর উন্নয়নের চিত্রাংকন প্রতিযোগীতায় বিজয়ী ১৫ জনকে পুরস্কৃত...

নরসিংদীতে অপহরণের ঘটনায় ৫ কিশোর গ্যাং সদস্য গ্রেফতার

মোঃ মোবারক হোসেন, নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীর পলাশে মুক্তিপণ আদায়ের উদ্দেশ্যে এক ছাত্রীসহ দুই শিক্ষার্থীকে অপহরণ...

বরগুনায় চলছে মাস ব্যাপি শিশু আনন্দ মেলা

বরগুনা প্রতিনিধিঃ পুঁথিপাঠ, লোকজ সঙ্গীত ও বাশিঁর সূরের মূর্ছনায় কবিতাবৃত্তির মধ্য দিয়ে বরগুনা মাসব্যাপি শিশু...

বরগুনায় প্রতিবন্ধীর ভাতার টাকা ইউপি সদস্যের ছেলের বিকাশে; স্বামী স্ত্রীর মানববন্ধন

মইনুল আবেদীন খান, বরগুনা প্রতিনিধিঃ বরগুনার বামনা উপজেলার বুকাবুনিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের তালিতাবুনিয়া গ্রামের মৃত...