মঙ্গলবার, ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ ,৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় অনুমোদিত, রেজি:নং ৭৮

জাতীয়করণ: ৩০ জুনের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা চান শিক্ষকরা

Array

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে চলতি বছরের ৩০ জুনের মধ্যে দেশের সব মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের ঘোষণা চান শিক্ষক নেতৃবৃন্দ। এবং ২০১৮ খ্রিস্টাব্দের জুলাইয়ের মধ্যে জাতীয়করণ বাস্তবায়ন শুরু করতে হবে। রোববার (২১শে মে)ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আয়োজিত সমাবেশে শিক্ষক নেতৃবৃন্দ এমন দাবি করেন।

সমাবেশে শিক্ষক প্রতিনিধিরা ১৫ দফা দাবি উত্থাপন করেন।

দাবিগুলো হচ্ছে- আগামী ৩০ জুনের মধ্যে মাধ্যমিক স্কুল জাতীয়করণ এবং ২০১৮ সালের ১ জুলাইয়ের মধ্যে বাস্তবায়নের দাবি জানিয়েছে মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা জাতীয় লিঁয়াজো কমিটি। শিক্ষা ক্ষেত্রে বিদ্যমান বৈষম্য দূরীকরণের লক্ষ্যে বিক্ষিপ্ত ও বিচ্ছিন্নভাবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ বন্ধ করে এক সাথে মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা জাতীয়করণ করতে হবে। সমগ্র জাতিকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দক্ষ সম্পদে পরিণত করার লক্ষ্যে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত জাতীয়করণের আওতায় বাধ্যতামূলক শিক্ষা ঘোষণা। সরকারি স্কুলের প্রধান শিক্ষকের ন্যায় বেসরকারি স্কুলের প্রধান শিক্ষকদের ৬ নম্বর গ্রেড তথা ৩৫৫০০ টাকার স্কেল বেতন প্রদান করার দাবি করেন তারা।

দাবির মধ্যে আরও রয়েছে, জনবল কাঠামো সংশোধন করে একজন শিক্ষক প্রথম চাকুরীতে যোগদান থেকে ৮ বছর সময় পর্যন্ত সহকারী শিক্ষক পদ মর্যাদাধারী হবেন। ৮ বছর সফল চাকরীর পর তাঁর পদবী হবে সিনিয়ির সহকারী শিক্ষক, ১২ বছর চাকরীর পর তাঁর পদবী হবে সিনিয়র শিক্ষক। পরবর্তীতে সহকারী শিক্ষক এবং প্রধান শিক্ষক। তাদের দাবির মধ্যে আরও রয়েছে পরিপত্রে আরোপিত শর্তের কারণে কম্পিউটার শিক্ষাসহ অন্যান্য বিষয়ে নিয়োগকৃত শিক্ষকগণ সরকারি বেতন পাচ্ছেন না, অনতিবিলম্বে পরিপত্র বাতিল পূর্বক নিয়োগকৃত শিক্ষকদের সারকারি বেতনের ব্যবস্থা করতে হবে। একই প্রতিষ্ঠানে কৃষি ও গার্হস্থ্য বিজ্ঞান উভয় বিষয়ের পদ সৃষ্টি পূর্বক শিক্ষক নিয়োগের ব্যবস্থা গ্রহণ এবং সরকারি বেতন প্রদান করতে হবে।

দাবির মধ্যে আরও রয়েছে, জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ এর দ্রুত বাস্তবায়নসহ শিক্ষার মানোন্নয়নের লক্ষ্যে পাঠ্যবই পরিমার্জন, প্রশ্নপত্র ও পরীক্ষা পদ্ধতির আরও সংস্কার করার দাবী তুলে ধরেন শিক্ষক প্রতিনিধিরা। বিষয় ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগ করারও দাবি করেন তারা। বার্ষিক ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ও বৈশাখী ভাতা বকেয়া হিসাব প্রদান করতে হবে। পাহাড়ী অঞ্চলে কর্মরতদের পাহাড়ী ভাতা দিতে হবে। একই সাথে ইউনেস্কো ও আইএলও এর সুপারিশের আলোকে শিক্ষাখাতে জিডিপির ৬ শতাংশ বরাদ্দ রাখার দাবী করেন তারা। প্রত্যেক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে একই প্রশাসনের অধীনে কারিগরি শিক্ষা শাখা চালুর করতে হবে।

অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক কর্মচারিদের অবসর গ্রহণ থেকে ৬ মাসের মধ্যে অবসর ও কল্যাণ ভাতা প্রদান ব্যবস্থা এবং শিক্ষক-কর্মচারি নিয়োগে ক্ষেত্রে পোষ্য কোটা চালুর দবিও করেন তারা।

সর্বোচ্চ সংখ্যক শিক্ষক-কর্মচারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত বিধায় অবসর সুবিধা বোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্টের মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে সদস্য সচিব নিয়োগ করা দাবি করা হয় শিক্ষক সমাবেশে। স্বীকৃতিপ্রাপ্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত সরকারি বেতন বিহীন শিক্ষক -কর্মচারিদের সরকারি বেতন প্রদানের ব্যবস্থা করতে হবে। এছাড়া পৃথক ভাবে মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর চালু করতে হবে।

১৫-দফা দাবির সর্বশেষ হলো: মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরসহ শিক্ষা বোর্ড কর্মকর্তা পদে মাধ্যমিক শিক্ষকদেরকে প্রেষণে নিয়োগ ব্যবস্থা।

সমাবেশে যৌথভাবে দাবিগুলো তুলে ধরেন মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা জাতীয় লিঁয়াজো কমিটির আহবায়ক ড. মো: ইদ্রিস আলী, বাশিস যুগ্ম আহবায়ক ও মহাসচিব জসিম উদ্দিন আহমেদ, যুগ্ম আহবায়ক মো: নূরুল ইসলাম, সদস্য সচিব প্রদীপ কুমার সাহা।

সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ ও বিশেষ অতিথি থাকবেন সাবেক শিক্ষা সচিব ও শিক্ষা বিষয়ক দেশের একমাত্র জাতীয় পত্রিকা দৈনিক শিক্ষাডটকম’র প্রধান উপদেষ্টা মোঃ নজরুল ইসলাম খান।

মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা জাতীয়করণের দাবীতে আয়োজিত সমাবেশে সকাল সাড়ে নয়টায়র মধ্যে সহস্রাধিক শিক্ষক-কর্মচারী জমায়েত হয়েছেন ঢাকার রমনা এলাকার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে।

মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা জাতীয়করণের দাবি নিয়ে সভা সমাবেশ করার লক্ষ্যে গঠিত দুইটি শিক্ষক সংগঠনের লিয়াজোঁ কমিটির আয়োজনে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সমাবেশে উপস্থিত হয়েছেন এমন কয়েকজন শিক্ষক  জানান, সারাদেশ থেকে শিক্ষকরা আসছেন। তারা আশা করছেন পাঁচা হাজারের বেশি শিক্ষক-কর্মচারী অংশ নেবেন।

সমিতির নেতা  মো: ইদ্রিস আলী ও প্রদীপ কুমার সাহাও বক্তৃতা করেন।

সমাবেশে ঢাকার উত্তরার কাচকুরা উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন খান বলেন, প্রাথমিক শিক্ষা জাতীয়করণে সাবেক প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মো: আফছারুল আমীন ও প্রতিমন্ত্রী মোতাহের হোসেন সরকারের সঙ্গে সার্বক্ষণিক লিয়াজোঁ করেছেন ঠিক একইভাবে প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দকে অনুরোধ জানান মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণে ভূমিকা রাখার।

সর্বশেষ

কেকেএসপি’র উদ্যোগে মাসব্যাপী ফুটবল প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের উদ্বোধন

খুলনা প্রতিনিধি:- পাইকগাছার কপিলমুনির ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কেকেএসপি'র পরিচালনায় উদ্বোধন হলো মাসব্যাপী ফুটবল প্রশিক্ষণ ক্যাম্প-২০২৩।সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৩টায় কপিলমুনি সহচরী বিদ্যামন্দির স্কুল এন্ড...

ভেজাল ও নকল ওষুধ তৈরি করলে যাবজ্জীবন, চূড়ান্ত অনুমোদন

ভেজাল ও নকল ওষুধ তৈরি করলে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রেখে ঔষধ আইন ২০২৩ এর...

দেশের জনসংখ্যা বেড়ে ১৬ কোটি ৯৮ লাখ

বাংলাদেশের জনসংখ্যা বেড়ে ১৬ কোটি ৯৮ লাখ ২৮ হাজার ৯১১ জনে দাঁড়িয়েছে। জনশুমারি ও...

কোহলি-রোহিতের সংঘাত নিয়ে যা বললেন কোচ

ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২৪০ রানের টার্গেট তাড়ায় ২২২...

তিন ফসলি জমি ধ্বংস না করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

দেশের যেসব জমিতে তিনটি ফসল হয় সেসব জমি উন্নয়ন প্রকল্প নেওয়ার সময় ধ্বংস না...

তুরস্কে আবারও ৭.৬ মাত্রার তীব্র ভূমিকম্প, মৃত্যু বেড়ে প্রায় দুই হাজার

সোমবার ভোররাতে হওয়া ৭.৮ মাত্রার ভয়াবহ ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছে তুরস্ক। এতে হাজার হাজার মানুষের...