কমলনগর রক্ষার দাবীতে ১৫ কি:মি: দীর্ঘ মানববন্ধন

শেয়ার

manobbondon news pic 20-04-2016manobbondon news pic (1) 20-04-2016
কমলনগর(লক্ষ্মীপুর)সংবাদদাতা
মেঘনা নদীর অব্যাহত ভাঙ্গন রোধে লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলা তোরাবগঞ্জ বাজার হইতে করুনানগর বাজার পর্যন্ত ১৫ কি: মি: দীর্ঘ মানববন্ধন হয়েছে। (আজ) বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত এ মানববন্ধনে অংশগ্রহন করে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক সংগঠন, সকল স্তরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ। এ সময় উপজেলা অবস্থিত সকল হাট-বাজরের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, প্রশাসনিক অফিস, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল। পরে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী বরাবর নদী ভাঙ্গনরোধ কমিটির পক্ষ থেকে একটি স্মারক লিপি পেশ করা হয়।
মানববন্ধনের আয়োজন করে উপজেলা নদী ভাঙ্গনরোধ কমিটি। মানববন্ধন চলাকালীন সময় অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন ওই কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ আবদুল মোতালেব, বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট সৈয়দ শামছুল আলম, জাতীয় শ্রমিকলীগ নেতা এডভোকেট আনোয়ারুল হক, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি নুরুল আমিন মাষ্টার, সাধারন সম্পাদক এডভোকেট নুরুল আমিন রাজু, অধ্যক্ষ জায়েদ হোছাইন ফারুকী, কমলনগর প্রেসক্লাব সভাপতি এম এ মজিদ, চেয়ারম্যান  এ এনএম আশরাফ উদ্দিন, মো: নিজাম উদ্দিন, রাশেদ বিল্লাহ আলমগীরসহ সামাজিক, রাজনৈতিক, ও বিভিন্ন শ্রেণীর পেশার মানুষ।

বক্তারা বলেন, উপজেলার এক তৃতীয়াংশ নদীর গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। হারিয়ে গেছে অসংখ্য হাট-বাজার, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ঘুর্ণিঝড় আশ্রয়ান কেন্দ্র, স্লুইচগেইটসহ হাজার কোটি টাকার সরকারী-বেসরকারী স্থাপনা। তারা আরও বলেন, যেহেতু মেঘনা সকল বাংলাদেশের সকল নদীর মিলিত রূপ এবং বঙ্গোপসাগরে মিলিত হওয়ার গেইট তাই এই মোহনায় প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ টন পলি জমা হয়ে মুল চ্যানেল ভরাট হয়ে গেছে। তাই নদী তীব্র গতিতে জনপদের দিকে ধেয়ে আসছে। এমতাবস্থায় মুল চ্যানেল ট্রেজিং এর বিকল্প নেই। কিন্তু আপতত ভাঙ্গনরোধে নদীর পাড় সংরক্ষনের জন্য ১৯৮ কোটি টাকা বরাদ্ধ হয়েছে। তার নিরিখে সেনাবাহিনীর তত্তবধানে কাজ শুরু হয়েছে রামগতি অংশে ৩ কি: মি: কাজ সম্পন্ন হয়েছে। কিন্ত অজ্ঞাত কারনে কমলনগর অংশে ১ কি: মি: কাজ বন্ধ হয়ে যায়। তাই অবিলম্বে ১ কি: মি: কাজ শুরু করা ও পুরো কমলনগরকে রক্ষার জোর দাবী জানানো হয় সমাবেশ থেকে।

No widgets found. Go to Widget page and add the widget in Offcanvas Sidebar Widget Area.