কমলনগরে পল্লী বিদ্যুতের লাইনম্যান আবুল কাশেমের বিরুদ্ধে গ্রাহক হয়রানি করার অভিযোগ

শেয়ার

লক্ষ্মীপুর:
লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে পল্লী বিদ্যুতের লাইনম্যান আবুল কাশেমকে ১০ হাজার টাকা না দেওয়ার গ্রাহকের বিদ্যুত বিছিন্ন করার অভিযোগ উঠেছে। গত ১৬ মে এর প্রতিকার চেয়ে লক্ষ্মীপুর পল্লী বিদ্যুতের রামগতি জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার বরাবর প্রতিকার চেয়ে লিখিত অভিযোগ করেন মো জসিম নামে একজন গ্রাহক।

ভোক্তভোগী জসিম জানান, আমার চর জাঙ্গালিয়া গ্রামের বাড়ীতে বিল্ডিংএর কাজ করার জন্য গত এপ্রিল মাসে পাশ্ববর্তী বাড়ী থেকে ২দিনের জন্য সাইট লাইন নিয়ে বিল্ডিংএ পানি দেই। পানি দেওয়া শেষ হলে ২দিন পর সাইট লাইন বন্ধ করে দেই। হাজিরহাট পল্লী বিদ্যুতের অফিসের লাইনম্যান গ্রেড-১ আবুল কাশেম আমার কাছে সাইট লাইন বাবদ ১০ হাজার টাকা দাবী করে আমি তা দিতে অস্বীকার করায় পল্লী বিদ্যুত অফিসে আমার নামে মিথ্যে অভিযোগ করে আমি নাকি বিদ্যুতের খুটি থেকে লাইন নিয়েছি। যা সঠিক নয়। ঐ এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ ও আশ-পাশের লোকজনকে জিজ্ঞাসা করলে তা জানতে পারবেন। তারা এ জন্য আমার হাজিরহাট বাজারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান জলিল ষ্টোরের নিয়মিত বিল পরিশোধকৃত মিটারের লাইন বিছিন্ন করে দেয়। এতে আমার ফ্রিজের ৪০ হাজার টাকার আইসক্রিম ও দধি নষ্ট হয়ে যায়। এ ব্যাপারে ডিজিএম বরাবর লিখিত অভিযোগ করে প্রতিকার পাইনি। হাজিরহাট বাজারের আশে-পাশে কমপক্ষে ৪০০/৫০০ সাইট লাইন রয়েছে যার দেখভাল করেন এ আবুল কাশেম। জসিম আরও জানান এর পুর্বে সে হাজিরহাট থাকাকালিন সময়ে আমার দোকান থেকে মুদি মাল ক্রয় করিত সে সময় আমার কিছু কথা কাটাকাটি হয়। এজন্য আমার উপর ক্ষোভ থাকতে পারে।

ব্যবসায়ী সেলিমসহ কয়েকজন জানান, গত এপ্রিল মাসে জসিমের বাড়ীতে বিল্ডিংএর পানি দেওয়ার জন্য মো, নুরনবীর বাড়ী থেকে সাইট লাইন দিয়ে  পানি দেয়। এ বিষয়টি আমরা জানি। বিদ্যুতের খুটি থেকে লাইন নেওয়ার বিষয়টি সঠিক নয়। কমলনগর উপজেলায় ৫/৬শ সাইট লাইন রয়েছে হাজিরহাট অফিসের লোকজনের সাথে আতাত করে এ লাইন ব্যবহার করার অভিযোগ রয়েছে।

লাইনম্যান আবুলকাশেম জানান, তারা অবৈধভাবে খুটি থেকে লাইন নিয়ে বিদ্যুত ব্যবহার করে এজন্য আমি অফিসে অভিযোগ দিয়েছি। অফিস তা ব্যবস্থা নিয়েছে। জসিম যে খুটি থেকে বিদ্যুত ব্যবহার করেছে তার কোন প্রমান আছে উত্তরে কাশেম জানান কোন প্রমান নাই।

রামগতি জোনাল অফিসের ডিজিএম এমরান গণি জানান, জসিম বিদ্যুতের খুটির সাথে আংটা লাগিয়ে বিদ্যুত ব্যবহার করেছে সেজন্য তার এ লাইনটি কাটা হয়েছে। এ মিটারের নিয়মিত বিল পরিশোধ তবুও লাইন কেটেছেন এ প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান ব্যাক্তিতো একজনই। তবে আমি শ্রীঘ্রই উভয় পক্ষের কথা শুনে এর ব্যবস্থা নিব।

No widgets found. Go to Widget page and add the widget in Offcanvas Sidebar Widget Area.