লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে রাস্তার পাশে পড়ে থাকা এক মৃত নবজাতককে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় কুকুর টানাহেঁচড়া করতে দেখা গেছে। ওই নবজাতকের মাথা ছাড়া কোন অংশ দেখা যাচ্ছে না। কুকুরের কামড়ের কারণে শুধু হাঁড়গুলো দৃশ্যমান। কে বা কারা শিশুটিকে রেখে গেছে তা জানা যায়নি।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) সকাল ৯ টার দিকে কুকুরের টানাহেঁচড়া করতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। উপজেলার উত্তর চরলরেঞ্চ পূর্ব মুজিবনগর মতিরহাট-তোরাবগঞ্জ সড়কের পাশে ওড়না কম্বল মোড়ানো অবস্থায় নবজাতকের মরদেহটি পড়ে আছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, একটি কালো ব্যাগ থেকে কম্বল ওড়না লুঙ্গী মোড়ানো নবজাতককে কুকুরে টেনেহেঁচড়ে বের করেছে। এটি দেখে স্থানীয়রা কাছে গিয়ে কুকুরকে তাড়িয়ে দেয়। কিন্তু নবজাতকের শরীরটি ক্ষতবিক্ষত দেখা যায়। ধারণা করা হচ্ছে, কুকুর নবজাতককে কামড়ে এ অবস্থার সৃষ্টি করেছে।
চরলরেন্স ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আহসান উল্যাহ হিরন জানান, একটি ব্যাগ থেকে কুকুর টেনেহেঁচড়ে নবজাতকের দেহটি বের করেছে। দূর থেকে এটি দেখে কাছে এসে কুকুরকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়। এরমধ্যেই শিশুটির পুরো দেহ ক্ষতবিক্ষত হয়। ঘটনাটি মর্মান্তিক।

কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নুরুল আবছার বলেন, ঘটনাটি এখনো কেউ আমাদের জানায়নি। আমরা এ বিষয়ে খোঁজ নিচ্ছি।

Print Friendly, PDF & Email

রিপ্লাই দিন:

আপনার কমেন্ট দিন
দয়া করে নাম লিখুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.