গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় অনুমোদিত

কমলনগরে দুই নেতার বাকবিতণ্ডা, শোক দিবসের প্রস্তুতি সভা ভণ্ডল!

নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে ১৫ আগস্ট শোক দিবসের প্রস্তুতি সভায় উপজেলা আওয়ামী লীগে সভাপতি নুরুল আমিন মাস্টার ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুরুল আমিন রাজুর মধ্যে বাকবিতণ্ডার ঘটনা ঘটেছে। এতে প্রস্তুতি সভা ভণ্ডল হয়ে যায়।

শনিবার (৭ আগস্ট) রাত ৮টার দিকে উপজেলার হাজিরহাট উত্তর বাজারে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত নির্ধারিত প্রস্তুতি সভায় এ ঘটনা ঘটে। সভায় এমনটি ঘটবে তা আশা করেননি বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আগত ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ উপজেলা পর্যায়ের নেতারা। এই ঘটনায় তারা উদ্বেগ প্রকাশ করেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ দুই নেতার বাকবিতণ্ডায় ও শোক সভার প্রস্তুতি সভা ভণ্ডুল হওয়ার বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে চলছে সমালোচনা।

জানা গেছে, ১৫ আগস্টের জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে কমলনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রস্তুতি সভা আয়োজন করা হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আমিন মাস্টারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন রাজুর সঞ্চালনায় প্রস্তুতি সভা চলছিল। এতে শোক দিবসের অর্থ প্রাপ্তি ও খরচের বিষয়ে আলোচনা হয়।

সভার এক পর্যায়ে মেঘনা নদীর ভাঙন রোধে আপদকালীন বরাদ্দে জিও ব্যাগ ডাম্পিংয়ের কাজ শুরু না হওয়া এবং ও স্থানীয় সংসদ সদস্যদের বরাদ্দের বিষয় তোলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন রাজু। তিনি সভাপতি নুরুল আমিন মাস্টারের কাছে এসব বিষয়ে জানতে চান। এ নিয়ে দুই জনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। তাৎক্ষণিক দুই নেতার অনুসারীদের মধ্যেও উত্তেজনা দেখা দেয়। এমন পরিস্থিতিতে দলের অন্যান্য নেতারা পরিস্থিতি শান্ত করেন। তবে শোক সভার প্রস্তুতি সভা ভণ্ডুল হয়ে যায়। এসময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি নিজাম উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রফিক চৌধুরীসহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সম্পাদকসহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন এমন একজন দলীয় নেতা বলেন, সভাপতি সম্পাদকের মধ্যে সমন্বয় নেই। স্থানীয় সংসদ সদস্যের বরাদ্দ নিয়ে তাদের দু’জনের মধ্যে অসন্তোষ চলছে। একজন অন্যজনকে বিশ্বাস করেন না। বিশ্বাস-অবিশ্বাস থেকে তর্ক-বির্তক ও বাকবিতণ্ডা হয়েছে। এতে প্রস্তুতি সভা ভণ্ডুল হয়ে গেছে।

এই বিষয়ে জানতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুরুল আমিন রাজুর মুঠোফোনে একাধিক বার কল করলে তার ব্যবহৃত ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

কমলনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আমিন মাস্টার বলেন, সাধারণ সম্পাদক শোক দিবসের প্রস্তুতি সভায় নদী ভাঙন রোধে অপদকালীন বরাদ্দ ও স্থানীয় সংসদ সদস্যের বরাদ্দের বিষয়ে তোলেন। মেঘনার ভাঙন রোধে অপদকালীন বরাদ্দ ও কাজ শুরু হওয়া না হওয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের ব্যাপার। স্থানীয় সংসদ সদস্যের বরাদ্দ এমপি সাহেব নিজেই বন্টন করে থাকেন। এসব বিষয়ে আমাকে জড়িয়ে কথা বললে তর্ক-বিতর্ক হয়। মুলত ভুল বুঝাবুঝি।

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ

রামগতি উপজেলা সরকারি কর্মচারী সমন্বয় পরিষদের নতুন কমিটি গঠন

দেলোয়ার হোসেন, রামগতিঃ- লক্ষীপুর জেলার রামগতি উপজেলার চতুর্থ শ্রেণীর সরকারি কর্মচারী পরিষদের নবগঠিত পুর্নাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়েছে। আজ বুধবার সন্ধ্যা উপজেলার নবনির্মিত কৃষি ভবনের...

৮ দফা দাবিতে সিরাজগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা শহিদ পরিবার জনতার মিছিল সমাবেশ

ইমরান হোসাইন, সিরাজগঞ্জঃ গণহত্যায় নিহতদের শহিদের মর্যাদা, শহিদ ভূমিহীন পরিবারকে পুনর্বাসন, যুদ্ধস্থান গণহত্যার স্থান চিহ্নিতকরণ...

সাংসদ তানভীর ইমামের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদ

ইমরান হোসাইন, সিরাজগঞ্জঃ উল্লাপাড়া উপজেলার চলমান উন্নয়ন কর্মকান্ডকে বাঁধাগ্রস্থ ও আওয়ামীলীগকে সাংগঠনিকভাবে দুর্বল করতে একটি...

আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধে ব্র্যাক’র প্রচার অভিযান ও মানববন্ধন

ইমরান হোসাইন, সিরাজগঞ্জ: ‘নারী নির্যাতন বন্ধ করি, কমলা রঙের বিশ্ব গড়ি’ শ্লোগানকে সামনে রেখে এক...

রামগতিতে বৃষ্টির পানিতে ডুবলো ধান, অসহায় কৃষকের স্বপ্ন ধূলিসাঁৎ

দেলোয়ার হোসেন, রামগতিঃ- টানা বৃষ্টির পানিতে ভাসছে পাকাঁ ধান, হতাশায় দিন কাটছে এখানকার খেটে খাওয়া...

আবরার হত্যা মামলায় ২০ জনের মৃত্যুদণ্ড

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় ২০ জনকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।...