আন্দোলনের মাধ্যমে বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনরায় প্রতিষ্ঠা হবে, মঈন খান

শেয়ার

লক্ষ্মীপুর: আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রকে হত্যা করে বাংলাদেশে একদলীয় বাকশাল শাসন কায়েম করেছে। খালেদা জিয়ার নির্দেশে আমরা গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মাধ্যমে এ সরকারকে অপসারণ করবো। এদেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনরায় প্রতিষ্ঠা করবো। শনিবার (০৬ মে) দুপুরে লক্ষ্মীপুর জেলা বিএনপির কার্যালয়ে আয়োজিত প্রতিনিধি সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ফ্রি অ্যান্ড ফেয়ার নির্বাচন যদি না হয় তাহলে এ নির্বাচন অর্থহীন। শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান না হলে বিএনপির কি ক্ষতি হবে, আওয়ামী লীগের কি ক্ষতি হবে জানি না, তবে বাংলাদেশের ক্ষতি হবে। আমরা যদি গণতন্ত্র চর্চায় একমত হই, গণতান্ত্রিক ধারায় বিশ্বাস করি তাহলে শুধু বিএনপির জন্য মঙ্গলজনক হবে না আওয়ামী লীগের জন্যও মঙ্গলজনক হবে। বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল খায়ের ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে প্রতিনিধি সভায় বক্তব্য রাখেন-বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোহাম্মদ শামছুল আলম, কেন্দ্রীয় বিএনপির প্রচার সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য নাজিম উদ্দিন, লক্ষ্মীপুর-৪ (রামগতি ও কমলনগর) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আশরাফ উদ্দিন নিজান, সাবেক সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি সাইমুন বেগম, কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-সম্পাদক ফেরদৌস আহমেদ খোকন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ভিপি হারুনুর রশিদ ও কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু। লক্ষ্মীপুর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাহাব উদ্দিন সাবুর সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি নিজাম উদ্দিন ভূঁইয়া, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট হারুনুর রশিদ বেপারী, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট হাছিবুর রহমান হাছিব, রায়পুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম হাওলাদার, পৌর বিএনপির সভাপতি এবিএম জিলানীসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতারা।

No widgets found. Go to Widget page and add the widget in Offcanvas Sidebar Widget Area.